• বিনোদন ডেস্ক
  • ৩০ মে ২০১৭ ১২:১০:৫৪
  • ৩০ মে ২০১৭ ১২:১০:৫৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বিয়ে করাটা ভুল ছিল: মনীষা কৈরালা

ছবি: সংগৃহীত

আমার বিয়ের প্রসঙ্গে যা যা ঘটেছে তার পুরো দায়দায়িত্ব আমি স্বীকার করছি। বিয়ে করাটা ভুল ছিল আমার। বললেন নেপালি বংশোদ্ভূত বলিউডের অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা।

তিনি বলেন, আমার এমন সিদ্ধান্তের পূর্ণ দায় আমি স্বীকার করছি, সবকিছুই খুব দ্রুত ঘটে যায়। আমার উচিৎ ছিল সময় নেওয়া এবং বিয়ে নিয়ে তাড়াহুড়া না করা।

নিজের অতীত নিয়ে হতাশা ব্যক্ত করলেও আজকালকার নায়িকাদের প্রশংসা করেন তিনি। তিনি বলেন, মেয়েদের অমনই হতে হয়- কারণ আমাদের জীবন একটাই। আমাদেরকে এই দেশের নারীদের কাছ থেকে অনুপ্রেরণা নিতে হবে- যেমন ঝাঁসির রানী লক্ষ্মীবাঈ।  

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে নেপালি পত্রিকায় খবর বেড়িয়েছিল যে স্বামী সম্রাট দাহল রীতিমতো মারপিট করেন মনীষা কৈরালাকে। এসব ঘটনায় মনিষা আত্মহত্যার চেষ্টাও করেন। বিয়ের মাস কয়েক পর থেকেই দুজন আলাদা থাকছেন। পরবর্তীতে তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে পড়েন। তবে সফল চিকিৎসা শেষে বর্তমানে ক্যান্সারমুক্ত ৪২ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী। 

নেপালের সম্ভ্রান্ত কৈরালা পরিবারে মনীষার জন্ম ১৯৭০ সালে। পঞ্চাশ এবং ষাটের দশকে নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তাঁর দাদা বিশ্বেশ্বর প্রসাদ কৈরালা। মনীষার দুই চাচা গিরিজা প্রসাদ কৈরালা এবং মাতৃকা প্রসাদ কৈরালাও নেপালের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। মনীষার বাবা প্রকাশ কৈরালাও সক্রিয় রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। হিন্দি ছবির পাশাপাশি তামিল, তেলেগু, মালয়ালম, বাংলা এবং নেপালি ছবিতে কাজ করেছেন মনীষা। তাঁর অভিনীত প্রথম বলিউডের ছবি ‘সওদাগর’ মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯১ সালে। 

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মনীষা কৈরালা

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0696 seconds.