The path to the image is not correct.

Your server does not support the GD function required to process this type of image.

নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ রাবি প্রশাসন
  • ০৬ নভেম্বর ২০১৯ ২১:১২:০১
  • ০৬ নভেম্বর ২০১৯ ২১:১৫:১৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ রাবি প্রশাসন

ছবি : সংগৃহীত

রাবি প্রতিনিধি :

‘বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন সময় ছিনতাই, চাঁদাবাজি, মাদক সেবন, যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটলেও প্রশাসনকে কোনো ধরনের কার্যকরি পদক্ষেপ নিতে দেখা যায় না। পুলিশের কাজ জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। কিন্তু সেই পুলিশের দ্বারাই আমরা আজ নির্যাতিত হচ্ছি। প্রক্টরিয়াল বডি থাকা সত্ত্বেও আজ আমাদের ওপর ছাত্রলীগ ও পুলিশি হামলার ঘটনা ঘটছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে।’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় আন্দোলনরত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পুলিশের লাঠিচার্জ এবং থানায় নিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে বুধবার মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা প্রশাসনের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তোলেন ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বিকেল তিনটায় অনুষ্ঠিত এই মানববন্ধনে আন্দোলনকারীরা বলেন, ‘জাবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় আমরা প্রধান সড়কে আন্দোলনে নেমেছিলাম। সেখানে আমাদের দাবি ছিলো, মারধরের ঘটনায় যে সকল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা যুক্ত তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা। আন্দোলনে আমাদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও একাত্বতা প্রকাশ করেন। কিন্তু আমাদের এই যৌক্তিক আন্দোলনে পুলিশ বাধা দেয়। এমনকি পুলিশ আমাদের ওপর লাঠিচার্জ করেছে।’

‘পরে আমাদের মধ্য চার জনকে থানায় নিয়ে মামলা করার হুমকি দিয়ে হয়রানি করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি থাকা সত্ত্বেও শিক্ষার্থীরা তাদের যৌক্তিক দাবি নিয়ে রাজপথে নামবার কারণে পুলিশি হামলা চালানো হয়! এর মত ন্যাক্কারজনক ঘটনা আর কি হতে পারে?’ এসময় শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে আন্দোলনকারীরা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষক দুর্নীতিকে সর্মথন করেন না। কিন্তু কতোজন শিক্ষক আছেন যারা এই দুর্নীতির প্রতিবাদ করেন? এর সংখ্যা অত্যন্ত নগণ্য। শিক্ষকরা হলেন জাতির বিবেক। আমরা চাই জাতির এই বিবেগ জাগ্রত হোক।’

বাংলা/এএএ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0191 seconds.