The path to the image is not correct.

Your server does not support the GD function required to process this type of image.

উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে বাসভবন ঘেরাও
  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০২ নভেম্বর ২০১৯ ২২:২১:২৫
  • ০২ নভেম্বর ২০১৯ ২২:২১:২৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে বাসভবন ঘেরাও

ছবি : সংগৃহীত

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রতি) উপাচার্য ড. এম রোস্তম আলীসহ প্রশাসনের সকল কর্মকর্তার ঘুষ, দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

২ নভেম্বর, শনিবার সকাল থেকে এই দাবিতে শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছেন। বিকেল ৪টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বাসভবনে অবরুদ্ধ হয়ে আছেন উপাচার্য। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক করতে ছাত্র উপদেষ্টা, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্য, সকল অনুষদের ডিন ও বিভাগীয় প্রধানদের নিয়ে উপাচার্য বৈঠকে বসেছেন বলে জানা গেছে।

বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা জানান, সম্প্রতি ফাঁস হওয়া পাবিপ্রবি উপাচার্য ড. এম রোস্তম আলীর কাছে চাকরি প্রার্থীর ঘুষ ফেরতের অডিও তদন্তসহ ১২ দফা দাবি পূরণে গত পাঁচ দিন ধরে আন্দোলন করছেন তারা। দাবি পূরণে বেঁধে দেয়া সময়সীমা পার হলেও প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় উপাচার্যসহ প্রশাসনের পদত্যাগের দাবিতে উপাচার্যের বাসভবন ঘেরাও করেছেন তারা। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন তারা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দলের সদস্য মাহমুদ কামাল তুহিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কেবল দুর্নীতিগ্রস্তই নয়, মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে একাধিক বার আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। শনিবার সকাল থেকে আমরা সকল ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে উপাচার্যের বাসভবন ঘেরাও করে উপাচার্যসহ প্রশাসনের সকল কর্মকর্তার পদত্যাগ দাবি করছি। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের ধারাবাহিক কর্মসূচি চলবে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ে শুধু ভিসি স্যারই নন, দায়িত্বপ্রাপ্তরা যে যার মতো করে অপকর্ম করে যাচ্ছেন, বিশ্ববিদ্যালয়টি যেন দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। আমরা বাধ্য হয়েই এই দুর্নীতিবাজ ভিসিসহ কর্মকর্তাদের পদত্যাগ দাবি করছি।

এদিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ভিসির বাসভবন ঘেরাওয়ের ফলে অবরুদ্ধ হয়ে পরেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন, কয়েকটি বিভাগের চেয়ারম্যান ও ভিসি অনুসারী শিক্ষকরা।

এ প্রসঙ্গে জানতে যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রীতম কুমার দাস বলেন, ‘অবরুদ্ধ অবস্থাতেই উপাচার্য শিক্ষার্থীদের দুই প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে শিক্ষার্থীরা কোনো কথাই শুনছেন না। বিকেলে উপাচার্য শিক্ষক, বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও ডিনদের সঙ্গে আলোচনা করছেন। তবে এখন কোনো বিষয়ে প্রশাসনিক কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি।’

বাংলা/এএএ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0240 seconds.