The path to the image is not correct.

Your server does not support the GD function required to process this type of image.

গাছ কাটা সেই নারী আটক
  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৪:৩৯:২৩
  • ২৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৪:৪০:২৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

গাছ কাটা সেই নারী আটক

ছবি : সংগৃহীত

বাসার ছাদের গাছ কেটে সমালোচিত হওয়া নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সম্প্রতি ওই নারীর গাছ কাটার দৃশ্য সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। সুমাইয়া হাবিব নামের ভুক্তভোগী এক নারী ফেসুবকে নিজের গাছের ওপর এমন বর্বর আচরণের ভিডিও আর বিবরণ পোস্ট করেন।

২৩ অক্টোবর, বুধবার ঢাকার সাভারের সিআরপি রোডে নিজ বাসা থেকে ওই নারীকে আটক করে পুলিশ।

আটক করে নিয়ে যাওয়ার সময় ওই নারী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘আমি ভুল কাজ করেছি, আমি অনুতপ্ত। আমি যখন ভুল করেছি আমি তার (গাছের মালিক) কাছে মাফ চাইবো। রাগের বসে আমি কাজটা করে ফেলেছি।’

ভুক্তোভোগী সুমাইয়া গণমাধ্যমকে বলেন, 'আমাদের তারা হিংসা করতো। আমাদের এখানে দুইটা ফ্ল্যাট আর তাদের একটা। আমরা গাছ লাগাইছি দেখে তাদের গা জ্বলত। তাদের ছেলে মস্তানি করে। সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। সেই ছেলে আমাদের গাছ ভেঙে ফেলত। একদিন তাদের উদ্দেশ্য না করে বলছিলাম, যারা আমাদের গাছ ভাঙতেছে তাদের হাত যেন অবশ হয়ে যায়। এতেই হয়তো শত্রুতা করল।'

এর আগে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, ওই নারী দা হাতে অন্য একজনের তৈরি করা ছাদবাগানের সব গাছ কেটে সাফ করে দিচ্ছেন! গাছের মালিকের আকুতি, কান্না তাকে স্পর্শ করছে না। সঙ্গে আছে তার ছেলে আর গুণ্ডাপাণ্ডার দল! একপর্যায়ে তাকে দা দিয়ে আঘাত করতে উদ্যত হন সব গাছ কেটে ফেলা ওই মহিলা।

সুমাইয়া তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, 'কখনো কি শুনছেন মানুষ গাছ অপছন্দ করে? গাছ পরিবেশ নষ্ট করে? এই মহিলার গাছ পছন্দ না। তার বক্তব্য আমাদের গাছ ছাদের পরিবেশ নষ্ট করে ফেলছে। তাই এই মহিলা আমাদের সব গাছ কেটে ফেলছে। কি অপরাধ ছিল গাছের? কি অপরাধ ছিল? কেউ বলতে পারবেন?'

'আমার মা গাছ অনেক পছন্দ করে, তাই ছাদের এক কোণায় আমরা কিছু গাছ লাগাইছিলাম। আর এই মহিলা আমাদের সাথে শত্রুতা করে আমাদের লাগানো গাছগুলা কেটে ফেলল। এই বিল্ডিংয়ে আমরা ২ টা ফ্লাট কিনেছি। সবাই যার যার ক্র‍য়কৃত ফ্লাটে থাকে। ছাদে সবারই অধিকার আছে। আমরা আমাদের অধিকার থেকে কিছু গাছ লাগিয়েছি ছাদের একটা কোণায়। কারণ আমরা ভাবতেও পারি নি গাছ মানুষ অপছন্দ করতে পারে। গাছ তো সৌন্দর্য বাড়ায়। আর তারা বলে আসছে আমাদের গাছ নাকি ছাদের পরিবেশ নষ্ট করে দিছে।'

'তারা অকারণে অন্যায়ভাবে আমাদের জীবন্ত এবং ফল ধরন্ত গাছগুলি কেটে ফেললো। আবার তার ছেলে কিছু ১০/১২ জন মাস্তান নিয়ে আসছে আমাদের উপর হামলা করার জন্য। আমাদের একটাই অপরাধ আমরা গাছ ভালবাসি। তাই শখ করে গাছ লাগিয়েছিলাম। আমরা তো অন্যের জায়গায় গাছ লাগাই নাই। আমরা আমাদের অধিকার থেকে গাছ লাগাইছিলাম। আমার মা এই গাছগুলিরে (গাছগুলোকে) নিজের সন্তানের মত যত্ন করে। আমরা গাছগুলোকে নিজের সন্তানের মত ভালবাসতাম। মানুষ কীভাবে এতটা নিচে নামতে পারে? গাছ তো তাদের কোনো ক্ষতি করে নাই। পুরা ছাদই তো ফাঁকা।'

‘এই মাগরিবের আযানের সময়, ওনার মাথায় সুন্নতি হিজাব কিভাবে পারলো এই ধরন্ত গাছগুলি কেটে ফেলতে। এর হয়তো কোনো বিচার হবে না। তবে আল্লাহর কাছে বিচার দিলাম। আল্লাহই বিচার করবে। আপনারা এই পোস্ট প্লিজ একটু শেয়ার করবেন।’

ওই স্ট্যাটাসে গাছ কাটা নারীর স্বামীর অ্যাড. সেলিম আলদীন এবং ছেলে আব্দুল্লাহ আলদীন লিখন আইডি লিংকও দেন।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0231 seconds.