• বিদেশ ডেস্ক
  • ২২ মে ২০১৯ ২২:১৫:৪৫
  • ২২ মে ২০১৯ ২২:১৫:৪৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আমেরিকানদের ধারণা যুক্তরাষ্ট্র ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করবে

ছবি : সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাপ্ত বয়স্ক অর্ধেক মানুষের ধারণা আগামি কয়েক বছরের মধ্যেই ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত হবে তাদের দেশ।  বার্তা সংস্থা রয়টার্স/ইপসোস জনমত জরিপের ফলাফলে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের মধ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যেই মঙ্গলবার এই জরিপের ফল প্রকাশিত হয়।  মে মাসের ১৭ থেকে ২০ তারিখে এই জরিপ করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে অনলাইনে ১ হাজার ৭ জন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের মধ্যে এই জরিপ পরিচালিত হয়।  এদের মধ্যে ৩৭৭ জন ডেমোক্রেট এবং ৩১৩ জন রিপাবলিকান সমর্থক ছিলেন।  

শতকরা ৫১ ভাগ মার্কিনী জানান, তাদের ধারণা আগামি কয়েক বছরের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়বে।    

যদিও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা ইরানকে নিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে করে থাকে, তবে খুব কম সংখ্যক মার্কিনীই চায় যুক্তরাষ্ট্র আগে ইরানের সামরিক বাহিনীর উপর হামলা করুক।  অবশ্য ইরান যদি প্রথমে মার্কিন সামরিক বাহিনীর উপর হামলা করে বসে তখন যুক্তরাষ্ট্রের উচিত হবে পূর্ণ সামরিক শক্তি নিয়ে  ইরানের হামলার জবাব দেয়া।  এক্ষেত্রে ৫ জনের মধ্যে ৪ জন মার্কিন নাগরিকই চায় যুক্তরাষ্ট্র হামলার শিকার হলে ইরানকে তার জবাব দেয়া উচিত।

শতকরা  ৬০ ভাগ মার্কিনীই চায় না যুক্তরাষ্ট্র আগে ইরানে হামলা করুক।  কেবলমাত্র ১২ শতাংশ আমেরিকান চায় যুক্তরাষ্ট্র আগে ইরানে হামলা করুক।

এদিকে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইরান নীতি শতকরা ৪৯ জন মার্কিন নাগরিক অনুমোদন দেয়নি।  এদের মধ্যে শতকরা ৩১ জন তীব্রভাবে ট্রাম্পের ইরান নীতির বিরোধিতা করেছে।  তবে সামগ্রিকভাবে জরিপে অংশগ্রহণকারী শতকরা ৩৯ জন ট্রাম্পের নীতির পক্ষে নিজেদের মত জানিয়েছে।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা ইরানের চেয়ে উত্তর কোরিয়াকে তাদের নিরাপত্তার জন্য বেশি হুমকি বলে মনে করে।  এক্ষেত্রে ইরান দ্বিতীয় এবং রাশিয়া তৃতীয় অবস্থানে আছে।   

উল্লেখ্য, ঐতিহাসিকভাবেই ইরান এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্কে উত্তেজনা রয়েছে।  তবে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এই উত্তেজনা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে।  তিনি ইরানের সঙ্গে করা গুরুত্বপূর্ণ পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে আসেন। এছাড়া গত বছর ইরানের উপর অবরোধ আরোপ করেন।  

বাংলা/এফকে

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0191 seconds.