• বিনোদন প্রতিবেদক
  • ১৭ মে ২০১৯ ১৬:২১:২১
  • ১৭ মে ২০১৯ ১৬:২২:৩৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

'ইফতারির সময় সব খেয়ে ফেলতে ইচ্ছে করতো'

ছবি: সংগৃহীত

এ সময়ের ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নাজিয়া হক অর্ষা। কাজের ডাক আসলেই নেমে পরেন শুটিংয়ে। আগে গল্পটি চরিত্রটি পছন্দ হতে হবে। তারপরই সেই কাজটি করার আগ্রহ জন্মায়। তিনি যে চরিত্রে অভিনয় করেন তা নিয়ে ভাবেন, কী পোশাক হবে, চরিত্রটি দেখতে কেমন হবে এসব নিয়েই ডুবে থাকে অভিনয়ের আগের সময়টাতে! তার বর্তমান ব্যস্ততা ও সমসাময়িক প্রসঙ্গ জানতে যোগাযোগ করা হয় মুঠোফোনে। ফোন ধরতেই ওপাশ থেকে হাসিমাখা কণ্ঠস্বরে বলেন আমি এখন শ্রীমঙ্গলে শর্ট দিচ্ছি একটু পর কথা বললে ভালো হয়। সেই ‘একটু পর’ শেষ হলো এক ঘন্টায়। তারপরই মূলত শুরু হয় আলাপচারিতা। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন মিঠুন আল মামুন।

ঈদের নাটকের শুটিং করছেন?

হ্যাঁ শ্রীমঙ্গলে এনটিভির একটি ৭ পর্বের ধারাবাহিক নাটক। এটির একটি জার্নি বেজ গল্পের নাটক। আজকে আমাদের শুটিংয়ের শেষ দিন তাই অনেক ব্যস্ত। নাটকটি নাম 'রংচং'। এটি রচনা করেছেন এজাজ মুন্না ও পরিচালনা করেছেন অশীম রোমেজ। এতে আমার সহশিল্পী , এফ এস নাঈম, ফারুক, মৌটুসী বিশ্বাস, সাজু খাদেমসহ আরো অনেকে।

মিডিয়ায় পথচলা ১০ বছরে পদার্পণ করলেন। আপনি কি মনে করেন ক্যারিয়ার ঠিক জায়গায় রয়েছে?

আমি সব সময় একজন শিল্পী হতে চেয়েছি। কখনও নায়িকা হতে চাইনি। একই ধরণের অভিনয় না করে আমি অল্প অল্প ভালো কাজ করে এগিয়ে যেতে চেয়েছি। চাইলে আমি অনেক কাজই করতে পারতাম। কিন্তু আমার অভিনয়ের নিজস্ব একটা চাহিদা রয়েছে। অভিনয়টা আমার কাছে শিল্প।আমার কাছে মনে হয় একজন শিল্পী হতে গেলে সময়ের প্রয়োজন।

প্রথম রোজা কবে রেখেছেন?

আমি প্রথম রোজা রেখেছিলাম পঞ্চম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায়। ভোর রাতে সেহরির খাচ্ছি। আবার সকাল ১০টার মধ্যে নাস্তা করছি। ছোটবেলায় আমি দিনে পাঁচ-ছয়বার বার খেতাম। তখন ভাবতাম যে আমার মনে হয় একদিনে পাঁচ-ছয়টা রোজা হচ্ছে। একটু বড় হওয়ার পর আম্মু বলতো যে সকালে নাস্তা খাওয়া যাবেনা দুপুরে খাবার খাওয়া যাবেনা। তুমি তো বড় হয়ে গেছে খাবার খাওয়া কমাতে হবে এখন।

শৈশবের রোজার মজার স্মৃতি?

রোজার মাসে সেহরির সময় আমাদের বাসায় ফলের একটা সালাদ খাওয়ার একটা ট্র্যাডিশন আছে। ফলের সালাদটা আমার কাছে খুবই লোভনীয় লাগতো। ওইটা খাওয়া জন্য আম্মুকে বলতাম যে আমাকে সেহরির সময় ডাকবা আমি রোজা থাকবো। 

ইফতারিতে কী ধরনের খাবার পছন্দ করেন?

ছোটবেলায় ভাজাপোড়া খাবার খেতে খুব পছন্দ করতাম। জিলাপি খেতে পছন্দ করতাম। ইফতারি সময় সব ক্ষেত্রে হবে আমাকে এমন ভাবনা কাজ করতো আমার মুড়ি মাখানো, হালিম চপ, পিঁয়াজু। আর এখন সময় সঙ্গে সঙ্গে নিজের মানসিকতার পরিবর্তন ঘটে এখন সিম্পল খাবার যেমন ধরেন দই-চিড়া,ফলের জুস।

আপনাকে নাটকে নিয়মিত দেখা গেল। অর্পিতা'র পর নতুন কোনো চলচ্চিত্র দেখা যায়নি?

বলতে গেলে নাটক দিয়ে আমার ক্যারিয়ারের শুরু। আর বড় র্পদা জায়গায় অনেক টাফ। 'অর্পিতার ছবির পর তেমন কোনো ভালো গল্প পায়নি।'অর্পিতা' ছবিতে অভিনয় করেছিলাম এর গল্পটা অসম্ভব ভালো লেগেছিল বলে। ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতাও ছিল অন্যরকম। চরিত্র ব্যতিক্রম বলে অভিনয়ে নিজেকে ভাঙার সুযোগ ছিল। এ ধরনের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেলে অবশ্যই করব।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0200 seconds.