• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৫ মে ২০১৯ ২১:৫২:১৭
  • ১৫ মে ২০১৯ ২১:৫২:১৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

উখিয়া, বান্দরবান ও রংপুরে বিড়ি শিল্প রক্ষায় মানববন্ধন

ছবি : সংগৃহীত

শ্রমঘন শিল্প হিসাবে বিড়িশিল্পকে রক্ষা এবং বহুজাতিক কোম্পানীর ছদ্মাবরণে কুটির শিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সোমবার দেশের বিভিন্ন স্থানে পৃথক সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ বিড়িশিল্প, তামাক চাষী সমিতি ও ভোক্তা পক্ষ।

কক্সবাজারের উখিয়া,বান্দরবান ও রংপুরে এসব সমাবেশ মানববন্ধন ও স্মারকলিপি পেশের কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

সোমবার বেলা ১২ টায় উখিয়ায় সাহিনা আক্তার চৌধুরী, এমপি’র বাসার সামনে মানববন্ধন করে উখিয়া বিড়ি ভোক্তা পক্ষ। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, উখিয়া বিড়ি ভোক্তা পক্ষের সভাপতি কবির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মইনুদ্দীন, সাংগঠনিক সম্পাদক নূর হোসেন ও সংগঠনের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। পরে তারা এমপি বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

বেলা ৩ টায় পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রীর বাসার সামনে মানববন্ধন করে বান্দরবান অঞ্চলের বিড়ি ভোক্তা পক্ষ। এতে বক্তব্য রাখেন, বান্দরবান অঞ্চলের বিড়ি ভোক্তা পক্ষের সভাপতি মোস্তাকিম জনি, সাধারণ সম্পাদক নাসিরুদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক রেমং মার্মা ও স্থানীয় সদস্যবৃন্দ।

এদিকে বেলা ১২ টায় রংপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে রংপুর জেলা তামাক চাষী ও ব্যবসায়ী সমিতি। সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, রংপুর জেলা তামাক চাষী ও ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মাহবুব আলম, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক নূরুল ইসলাম লাভলু, ব্যবসায়ী নেতা আকরাম হোসেন, আবুল কালাম আজাদ ও কৃষক নেতা লুৎফর রহমান প্রমুখ।

বিড়িকে কুটির শিল্প ঘোষণাসহ ৭ দফা দাবী তোলেন বক্তারা। দাবিগুলো হলো বিড়ির উপর অর্পিত সকল কর প্রত্যাহার করা, ভারতের ন্যায় এ শিল্পকে কুটির শিল্প ঘোষণা করা, বিদেশি সিগারেট বাংলাদেশে বন্ধ করা, বিড়ি শিল্পকে ধ্বংস করার পায়তারা বন্ধ করা, বিড়ি যেন কম মূল্যে পাওয়া যায় সে ব্যবস্থা বজায় রাখা। সমাবেশে বলা হয়, বাংলাদেশে সিগারেট যতদিন থাকবে, বিড়িশিল্প তত দিন থাকবে ও প্রতি বছর বাজেটে বিড়ি সিগারেটের কর বৈষম্য দূর করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0188 seconds.