• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১০ মে ২০১৯ ২২:২৫:২২
  • ১০ মে ২০১৯ ২২:২৫:২২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ম্যাজিস্ট্রেট এসেছেন শুনে পালালেন বর

ছবি : সংগৃহীত

ম্যাজিস্ট্রেটে আসার খবর শুনে পালিয়ে গেলেন বর। এতে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলেন সাগরিকা আক্তার ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার শোনপাচা দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্রী।

জানা যায়, সদরপুর উপজেলার আকোটেরচর ইউনিয়নের নতুন সাহেবেরচর গ্রামের আতাহার মোল্যার মেয়ে সাগরিকা আক্তারের সঙ্গে একই গ্রামের আইয়ুব মোল্যার প্রবাসী ছেলে লিটন মোল্যার (২৮) বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও অ্যাসিল্যান্ড সজল চন্দ্র শীল কনের বাড়িতে হাজির হন। এসময় কনের বাড়ির সবাই ভেবেছিল বর এসেছে। ওই বাড়িতে অ্যাসিল্যান্ড হাজির হওয়ার খবর পেয়ে পালিয়ে যান বর। বিয়ে বাড়িতে আসতে থাকা বরযাত্রীরাও ফিরে যান।

এসময় বিয়ে বন্ধ করে কনের বাবাকে আটক করেন অ্যাসিল্যান্ড। পরে কনের বাবা তার কন্যা প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দেবে না মর্মে মুচলেকা দেন নির্বাহী ম্যাজিট্রেটের কাছে। পরে কনের বাবাকে ছেড়ে দেয়া হয়। এসময় স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সদরপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সজল চন্দ্র শীল জানান, নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া মাদ্রাসা ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কনের বাড়িতে হাজির হওয়ার সংবাদ পেয়েই বর আর আসেনি।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ফরিদপুর বাল্যবিয়ে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0197 seconds.