• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৯ মে ২০১৯ ১৯:৪২:১৭
  • ০৯ মে ২০১৯ ১৯:৪২:১৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কৃত্রিম পা পেয়েই আনন্দে নাচলো শিশুটি!

আহমাদ সায়েদ রহমান। ছবি : সংগৃহীত

বয়স কত, মাত্র পাঁচ বছর। এইটুকু বয়সেই বর্বর পৃথিবীর রূপ তার দেখা হয়ে গিয়েছিলো। জমিনে পুতে রাখা মাইন বিস্ফোরণে পা হারায় আফগান শিশু আহমাদ সায়েদ রহমান। ছুটে চলা জীবন তার মুখ থুবরে পরে।

এরপর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বেঁচে গেলেও পা হারিয়ে পঙ্গু হয়ে যায় আহমাদ। তবে কাবুলে রেড ক্রসের একটি হাসপাতাল থেকে কৃত্রিম পা পায় পাঁচ বছর বয়সি আহমাদ সায়েদ রহমান। কৃত্রিম পা লাগানোর পর থেকে আনন্দে নেচে চলছে সায়েদ। হাসপাতালেই রীতিমত নাচানাচি শুরু করেছেন শিশুটি। তার এই নৃত্য দেখে আনন্দে আপ্লুত হয়ে ওঠে চিকিৎসক-নার্সরাও। আর তার সেই নাচের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

শিশুটির এই আনন্দ যেন ছড়িয়ে পরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানবিক বোধ সম্পন্ন মানুষকেও আপ্লুত করেছে। আহমাদের মা রায়িসা বলেন, ‘তার কৃত্রিম পা লাগানোতে আমিও খুব আনন্দিত। কারণ, এখন সে স্বাধীনভাবে চলাফেরা করতে পারবে। সারাক্ষণই সে নাচছে এবং প্রকাশ করছে কৃত্রিম পা পেয়ে কতটা খুশি সে।’

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, হাসপাতালে নাচছে আহমাদ। যা ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। একটি টুইট থেকে ভিডিওটি এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে প্রায় ৯ লাখ বার।

আহমাদের মা জানান, তালেবান ও মার্কিন সমর্থিতদের যুদ্ধে ক্রসফায়ারের মধ্যে পড়ে আহমাদ ও তার এক বোন গুরুতর আহত হয়েছিল। মাত্র ৮মাস বয়েসে সে তার পা হারায় বোমার আঘাতে।

কাবুলে রেডক্রস অর্থোপেডিক সেন্টারের সাইকোথেরাপিস্ট সিমিন সারওয়ারি বলেন, ‘সে (আহমাদ) সব সময় খেলতে চায় এবং সে দ্রুতই তার কৃত্রিম পা-কে মানিয়ে নিতে চাচ্ছে। সে ঘরের কোনে আটকে থাকতে চায় না।’

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0196 seconds.