• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৭ মে ২০১৯ ১৩:২২:৪২
  • ০৭ মে ২০১৯ ১৩:২২:৪২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ভিন্ন জাতে বিয়ে করায় অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা!

ছবি : সংগৃহীত

ভারতে ভিন্ন জাতের এক ছেলেকে বিয়ে করার অপরাধে অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে এক বাবার বিরুদ্ধে। মেয়ে রুকমিনি রমা ভারতীয়া (২৩) এবং তার স্বামী মাংগেস চন্দ্রকান্ত রানাসিং (২৩) এর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন বাবা ও স্বজনরা। এতে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান রুকমিনি। 

অপরদিকে তার স্বামীর শরীরের ৪০ শতাংশই আগুনে পুড়ে গেছে। হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন তিনি।

রবিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পুণের একটি হাসপাতালে মারা যান রুকমিনি রমা ভারতীয়া। এ ঘটনায় সুরেন্দ্রকুমার এবং গানসিয়াম নামে দু'জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রুকমিনি রমা ভারতীয়া মারা যাওয়ার সময় দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। পরিবারের দেওয়া আগুনে তার ৭০ শতাংশ পুড়ে যায়।

পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় কুমার বলেন, রুকমিনি রমা ভারতীয়া ভিন্ন জাতের তরুণ মাংগেস চন্দ্রকান্ত রানাসিংকে বিয়ে করেছিলেন। তাদের এ বিয়ে মেনে নিতে না পরিবার। যার ফলে তারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। 

গত বছরের নভেম্বরে দুই পরিবারের অসম্মতিতে বিয়ে করেন রানাসিং এবং রুকমিনি। গত ২৮ এপ্রিল নিগোজ গ্রামে বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন রুকমিনি। এরপর গত ১ মে স্ত্রীকে শ্বশুরবাড়িতে নিতে এসেছিলেন রানাসিং। সে সময় রুকমিনির বাবা এবং চাচারা মিলে তাদের দু'জনকে একটি রুমে আটকে রাখে। এরপর ওই রুমে আগুন ধরিয়ে দেয়।

প্রতিবেশীরা চিৎকার শুনে ওই দম্পতিকে উদ্ধার করে এবং পুলিশে খবর দেয়।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ভারত হত্যা বিয়ে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0186 seconds.