• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ মে ২০১৯ ২২:৩৯:৩৩
  • ০১ মে ২০১৯ ২২:৩৯:৩৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

হিজাব এবং বুরকিনি পরে মডেল হলেন প্রথম মুসলিম নারী

হালিমা এডেন। ছবি : সংগৃহীত

মার্কিন ক্রীড়াবিষয়ক প্রখ্যাত ম্যাগাজিন স্পোর্টস ইলাস্ট্রেডের ২০১৯ সালের বার্ষিক সুইমস্যুট (সাঁতারের পোশাক) সংখ্যায় মাথায় হিজাব দিয়ে এবং বুরকিনি পরে প্রথম কোন মুসলিম নারীকে প্রচ্ছদ কন্যা হিসেবে দেখা যাবে।

সোমবার স্পোর্টস ইলাস্ট্রেড এক বিবৃতিতে এই তথ্য প্রকাশ করেছে। ম্যাগাজিনটি জানায়, সোমালিয়ার বংশোদ্ভূত হিজাব পরা মার্কিন মডেল হালিমা এডেনকে তারা মডেল হিসেবে নির্বাচন করেছে।

ম্যাগাজিনের মুখপাত্র বলেন, ‘স্পোর্টস ইলাস্ট্রেডের সুইমস্যুট পরিবারের নতুন সদস্য হিসেবে হালিমা এডেনের নাম ঘোষণা করতে পেরে আমরা রোমাঞ্চিত বোধ করছি। হিজাব এবং বুরকিনি পরে প্রথম মুসলিম নারী হিসেবে এই ম্যাগাজিনের মডেল হয়ে তিনি ইতিহাস সৃষ্টি করলেন।’

প্রসঙ্গত, বোরকা এবং বিকিনির সমন্বয়ে বুরকিনি শব্দটির উৎপত্তি। যেসব মুসলিম নারী সাঁতারের সময় বিকিনির মত সংক্ষিপ্ত পোশাক পরতে পারেন না তাদের জন্য অস্ট্রেলিয়ার আহেদা জানেত্তি প্রথম এই পোশাকটি ডিজাইন করেছিলেন।

স্পোর্টস ইলাস্ট্রেডের সুইমস্যুট সংখ্যার ফটোশ্যুটের জন্য হালিমার জন্মস্থান কেনিয়ার ওয়াতামু সৈকতকে বেছে নেয়া হয়েছে।

এক ভিডিও বার্তায় হালিমা জানান, যুক্তরাষ্ট্রে বেড়ে উঠার পরও তিনি নিজেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি মনে করতে পারতেন না কারণ তিনি কখনো কোন ম্যাগাজিনে হিজাব পরা মডেল দেখেননি।

এদিকে স্পোর্টস ইলাস্ট্রেডের মত একটি ম্যাগাজিন যারা নারীকে প্রদর্শনের বস্তু ছাড়া আর কিছুই মনে করে না, সেখানে বুরকিনি পরে মডেল হওয়ায় অনেকেই হালিমার সমালোচনা করেছেন।

উল্লেখ্য, সোমালিয়া থেকে পালিয়ে হালিমার পিতামাতা কেনিয়ার একটি শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছিলেন।  ওই শিবিরেই হালিমার জন্ম। ৭ বছর পর্যন্ত তিনি ওই শিবিরেই ছিলেন। এরপর অভিবাসী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে চলে আসেন তারা।

ফ্যাশন জগতে শালীন পোশাকের মডেল হিসেবেই ২১ বছর বয়সি হালিমার পরিচিতি। ১৯ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রের মিস মিনেসোটা প্রতিযোগিতায় হিজাব পরে তিনি সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন। সেই প্রতিযোগিতায় সেমিফাইনাল পর্যন্ত উঠেছিলেন তিনি। স্পোর্টস ইলাস্ট্রেড ছাড়াও ব্রিটিশ ফ্যাশন ম্যাগাজিন ভোগ এর প্রচ্ছদেও তাকে দেখা গেছে।

বাংলা/এফকে

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0083 seconds.