• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ৩০ এপ্রিল ২০১৯ ১৫:০০:৫৯
  • ৩০ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৪০:৩৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে গান শুনিয়েই বাংলাদেশকে মুগ্ধ করলো ছোট্ট সাম্য

সাম্য। ছবি: তামিম ইয়েমিন

দেশ যখন পুড়ছে তাপদাহে তখন ছোট্ট সাম্য আপন মনেই গাইছিলো ‘শ্রাবনও মেঘে নাচে নটবর...’ সেই গানটি যাদের কাছে পৌঁছেছে অন্তত সেই মুহূর্তের জন্য হলেও মনে হবে এই তপ্ত পৃথিবীতে বুঝি শ্রাবণ চলে এসেছে। শীতল হয়ে উঠবে মন ক্ষণিক সময়ের জন্য। জামালপুরের ছোট্ট মেয়ে সাম্যর গানে এমনই মুগ্ধতা ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

জামালপুর মেলান্দহ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তামিম ইয়েমিনের কল্যানে সাম্যর গান ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে।

এক তপ্ত দুপুরে আপন মনেই গান গাইছিলো ছোট্ট সাম্য। নির্বাহী কর্মকর্তা তামিম ইয়েমিন তার গানে মুগ্ধ হয়ে ভিডিওটি ফেসবুকে লাইভ প্রচার করেন। এরপর রীতিমত ভাইরাল। সাম্যর কণ্ঠে নজরুল সঙ্গীত শুনে মানুষ যেমনই মুগ্ধতা প্রকাশ করেছে, তেমনি বিস্মিতও হয়েছে। এতটুকু বয়সে কী দারুণ কণ্ঠ আর গায়কী!

শুধু তাই নয় আরো বেশ কয়েকটি গান ছড়িয়ে পড়ে সাম্য’র। তামিম ইয়েমিন সাম্যর বেশ কিছু গান একইভাবে ফেসবুকে প্রকাশ করেন। গানগুলো বিভিন্ন পেজ, গ্রুপ ও ব্যক্তির ফেসবুক ওয়ালে আপলোড হতে থাকে এবং ছড়িয়ে পড়ে।

সাম্যর গান শুনতে চাইলে-

সাম্যর পুরো নাম লিউনা তাসনীম সাম্য। বাবা আজমত আলী ও মা আনজুম মোস্তারির ২য় সন্তান সাম্য।  আজমত আলী মেলান্দহ উপজেলার সমাজসেবা কার্যালয়ে কর্মরত আছেন।

তামিম ইয়েমিন তার ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে উল্লেখ করেন, ‘উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি'র শিক্ষার্থী  সাম্য গান গাওয়া, ছবি আঁকা ও নাচার পাশাপাশি পড়াশুনাও করে এবং খুব ভালোভাবে করে। সে উত্তর মেলান্দহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

গানটি লাইভ দেখে সাতক্ষীরা সদরের উপজেলা নির্বাহী অফিসার আমার ব্যাচমেট দেবাশিষ চৌধুরী ফরোয়ার্ড করেন জুবায়ের আল মাহমুদ রাসেলকে। তিনি এটা তার একাউন্ট থেকে আপলোড করার পর ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়তে থাকে। ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি তাদের প্রতি।’

ছবি: তামিম ইয়েমিন

তামিম আরো লিখেছেন, ‘সাম্যকে দেখতে চাইলে আপনাকে আসতে হবে জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলায়। আর যদি কষ্ট করে এতদূর না আসতে চান তবে কিছুদিন অপেক্ষা করুন। সে আপনাদের হৃদয়ের অন্দরে পৌঁছে যাবে। মূলত তার গান দিয়ে।’

এদিকে সাম্যর গানে মুগ্ধ হয়ে অনেকেই তাকে নিয়ে নানা ধরনের উচ্ছাস প্রকাশ করে ফেসবুকে মন্তব্য করেছেন। অনেকেই মনে করছেন এই ক্ষুদে শিল্পীর ঠিকমত যত্ন নেয়া হলে ভবিষ্যতে সাম্য দেশের বড় সম্পদ হয়ে উঠবে একজন শিল্পী হিসেবে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

Page rendered in: 0.0092 seconds.