• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৮ এপ্রিল ২০১৯ ২১:৪৯:০৭
  • ০১ মে ২০১৯ ১৯:৫৩:৪৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

হজ-ওমরাহ বর্জনের আহ্বান লিবিয়ার শীর্ষ মুফতির

মুফতি সাদিক আল ঘারিয়ানি, ছবি : সংগৃহীত

যেসব মুসলমান দ্বিতীয়বার হজ কিংবা উমরাহ করার জন্য পরিকল্পনা করেছেন লিবিয়ার শীর্ষ মুফতি সাদিক আল ঘারিয়ানি তাদেরকে তা করা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।  লিবিয়ার টেলিভিশন চ্যানেল ইয়ান লিবিয়ায় প্রচারিত এক ভিডিও বার্তায় তিনি এই আহ্বান জানান।  

সম্প্রতি এক ফতোয়ায় মুফতি সাদিক জানান, হজ এবং উমরাহর জন্য মুসলমানরা সৌদি আরবকে যে অর্থ দেন তা দিয়ে সৌদি শাসকরা মুসলমানদের মারার জন্য অস্ত্র কেনার কাজে ব্যয় করেন।  এর ফলে দ্বিতীয়বার হজ করায় সওয়াব হওয়ার বদলে বরং পাপই বেশি হচ্ছে।  

এই ফতোয়ার কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমাদের মুসলিম ভাইদের বিরুদ্ধে অপরাধ পরিচালনা করতে হজের টাকা সৌদি শাসকদের সাহায্য করে। ’ এই প্রসঙ্গে তিনি ইয়েমেন,লিবিয়া,সুদান, তিউনিসিয়া এবং আলজেরিয়ার কথা উল্লেখ করেন।  তিনি জানান, হজ এবং ওমরার অর্থ এসব দেশের মুসলমানদের হত্যায় কাজে লাগে।

শীর্ষ এই মুফতি বলেন, পৃথিবীর এমন কোন স্থান নেই যেখানে সৌদি আরব ক্ষতিসাধন করেনি।   

মুফতি সাদিক আল ঘারিয়ানি জানান, এই ফতোয়ার দায় দায়িত্ব সম্পূর্ণ তার নিজের।  এজন্য তিনি আল্লাহর কাছে জবাবদিহিতা করবেন।

উল্লেখ্য, মুসলমানদের পাঁচটি অবশ্য পালনীয় ইবাদতের একটি হজ।  প্রতি বছর জিলহজ মাসে সৌদি আরবের মক্কায় হজ পালন করেন ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা।  স্বচ্ছল মুসলমানদের জন্য হজ পালন করা ফরজ বা অবশ্য কর্তব্য। এদিকে ওমরাহ হজের মত হলেও এটি পালনে কোন বাধ্যবাধকতা নেই।  বছরের যে কোন সময় ওমরাহ পালন করা যায়।  লিবিয়ার শীর্ষ মুফতি স্বচ্ছল মুসলমানদের জীবনে একবার হজ পালন করা ছাড়া দ্বিতীয়বার তা না করার পরামর্শ দিয়েছেন।

বাংলা/এফকে

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0327 seconds.