• ফিচার ডেস্ক
  • ২০ এপ্রিল ২০১৯ ১৭:৪২:৩৪
  • ২০ এপ্রিল ২০১৯ ১৭:৪২:৩৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

শক্তিশালী ক্যামেরা নিয়ে দেশে বিক্রি শুরু অপো ‘এফ১১ প্রো’

ছবি : সংগৃহীত

গত ১৬ তারিখ আনুষ্ঠানিক উন্মোচনের বসুন্ধরা সিটিএর লেভেল ৫- এ অপো শো রুমে গতকাল বিকেল ৪টা থেকে বাংলাদেশি ক্রেতাদের জন্যে আনুষ্ঠানিকভাবে বিক্রি শুরু হলো ‘ব্রিলিয়ান্ট পোর্ট্রেট’ ফটোগ্রাফিকে ভিন্ন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া অপোর নতুন উদ্ভাবন সংযুক্ত স্মার্টফোন অপো এফ১১ প্রো।

গত বছরে বাংলাদেশের বাজারে উন্মোচিত পূর্ববর্তী এফ সিরিজ হ্যান্ডসেটের বিক্রির চেয়ে এ বছরের প্রথম বিক্রি বৃদ্ধি পেয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অপো বাংলাদেশের ব্র্যান্ড ম্যানেজার ইয়োনো এবং পিআর ম্যানেজার ইফতেখার সানী। 

এ বিক্রয় কার্যক্রম সম্পর্কে অপো বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডেমন ইয়ং বলেন ‘বাংলাদেশে বিক্রয় কার্যক্রম শুরুর আগেই অপো এফ১১ প্রো’কে ঘিরে প্রযুক্তিপণ্য ভক্তদের মাঝে যে প্রবল আগ্রহ ও উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে তা আমাদের জন্য খুবই উৎসাহব্যঞ্জক। এ ফোনটিতে সংযুক্ত নতুন উদ্ভাবনগুলো ক্রেতাদের সন্তুষ্টির থেকেও বেশি কিছুই দেবে বলে আমরা আশাবাদী।’ 

রবিশপ সহ বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও অপো সেন্টার থেকে কেনা যাবে অপো এফ১১ প্রো। আর কেনার সাথে সাথেই রবি ও এয়ারটেল গ্রাহকরা বোনাস হিসেবে পেয়ে যাবেন ১২ গিগাবাইট ইন্টারনেট ডাটা। রবি ও এয়ারটেলের বিদ্যমান ও নতুন প্রিপেইড ও এসএমই গ্রাহকরা অপো এফ১১ প্রো কেনার সাথে সাথেই মোট ১২ গিগাবাইট ইন্টারনেট ডাটা উপহার হিসেবে পাবেন (এর মাঝে ৩ গিগাবাইট ৪জি ও ৩ গিগাবাইট মাই স্পোর্টস, ৩ গিগাবাইট রবি স্ক্রিণ ও বাকী ৩ গিগাবাইট ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহার করা যাবে রবি স্পø্যাশ- এ)। দারুণ এই অফারটির মেয়াদ থাকবে ৩০ দিন পর্যন্ত।  

থান্ডার ব্ল্যাক ও অরোরা গ্রিন কালার ভেরিয়েশনে অপো এফ১১ প্রো পাওয়া যাবে ৩৬,৯৯০ টাকায়।

বিশ্বব্যাপী তরুণদের অন্যতম পছন্দের ক্যামেরা ফোন ব্র্যান্ড অপো সবসময়ই সৃজনশীল তরুণদের হাতে সৃষ্টিশীল একটি ডিভাইস তুলে দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ‘সেলফি এক্সপার্ট’ থেকে ‘ব্রিলিয়ান্ট পোর্ট্রেট’ হিসেবে এফ সিরিজকে পরিচিত করে আগের যুগান্তকারী ক্যামেরা উদ্ভাবনকে ভিন্ন উচ্চতায় নিয়ে গেছে অপো এফ১১ প্রো।

স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অপো এফ সিরিজের সর্বাধুনিক শক্তিশালী ক্যামেরা সিস্টেম।  এফ১১ প্রো ফোনটিতে রিয়ার ক্যামেরা দারুণ ভাবে আপগ্রেড করা হয়েছে। আল্ট্রা হাই স্ট্যান্ডার্ড ৪৮ মেগাপিক্সেল ও ৫ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা সিস্টেম, এফ১.৭৯ এপারচার, বল-বীয়ারিং ক্লোজড-লুপ ভিসিএম, ৬পি লেন্স ও ১/২.৩ ইঞ্চি ইমেজ সেন্সরের সমন্বয়ে এই ক্যামেরা অধিক আলো ধারণ করতে সক্ষম।

ডে-লাইট থাকা অবস্থায় এই স্মার্টফোন দুটি ৪৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা এইচডি ছবি আউটপুট দিতে সক্ষম। স্বল্প আলোতে এফ১১ প্রো- এর ‘টেট্রাসেল টেকনোলজি’ পাশাপাশি থাকা প্রতি ৪টি পিক্সেলকে ১টি ১.৬ মাইক্রোমিটার পিক্সেলে পরিণত করে এর থেকে পাওয়া ডাটা বিশ্লেষণ করে ও সমন্বয় করে ফটোসেন্সিটিভ পিক্সেলের আকার দ্বিগুণ করে ফেলার মাধ্যমে উজ্জ্বল ও ‘লো-নয়েজ’ নাইট পোর্ট্রেট তুলতে সক্ষম। 

বাংলা/এসি 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0189 seconds.