• বিনোদন ডেস্ক
  • ১৭ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:০১:৫৫
  • ১৭ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:০১:৫৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

টেনশনে আছেন নুর, খেতে পারছেন না খাবার

ছবি : সংগৃহীত

ভারতের চলমান নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের রায়গঞ্জে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন বাংলাদেশের অভিনেতা ফেরদৌস। ইতোমধ্যে ভিসা বাতিল ও তাকে ব্ল্যাক লিস্টেড করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এসব দেখে টেনশনে খাওয়া দাওয়া প্রায় ছেড়ে দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় যাওয়া আরেক বাংলাদেশি অভিনেতা গাজী আবদুন নুর।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, ‘আমি কিছুই জানতাম না। না জেনেই তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচারে গিয়েছিলাম। আর তার পর থেকে এত টেনশন হচ্ছে যে কিছুই ভালো লাগছে না। সারাদিন এক কাপ কফি ছাড়া কিছুই মুখে দিইনি।’

ক’দিন আগেই তৃণমূলের হয়ে দমদম কেন্দ্রে একটি নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেন জনপ্রিয় টিভি সিরিয়াল ‘রানি রাসমণি’-র অভিনেতা নুর। তিনি বলেন, ‘আমি দক্ষিণেশ্বর গিয়েছিলাম। সেখান থেকে যাই মদনদার (মদন মিত্র) কামারহাটির বাড়িতে। মদনদার সঙ্গে আমার অনেক পুরনো সম্পর্ক। আমার মাকে বাঁচিয়েছিলেন মদনদা। দাদা, বলেছিলেন, চল একটা কাজ আছে, সেটা সেরেই তোকে নামিয়ে দেব। কিন্তু পরে গিয়ে বুঝতে পারি ওটা নির্বাচনী প্রচার ছিল। আমি কোনো প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানাইনি।’

বাংলাদেশের ছেলে নুর ২০১২ সাল থেকে রয়েছেন কলকাতায়। রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতা ও গণজ্ঞাপন বিষয়ে এমএ পাশ করার পরে অভিনয় শুরু করেন। তিনি বলেন, ‘এত দিন ধরে কলকাতায় আছি, বুঝতেও পারিনি কোনো দিন এমন পরিস্থিতির মুখে পড়তে হবে।’

রাসমণির ‘রাজচন্দ্র’ জানিয়েছেন, তিনি ইতোমধ্যেই বাংলাদেশ হাইকমিশনে পুরো বিষয়টি জানিয়েছেন। ব্যাখ্যা করে বলেছেন, তিনি জানতেনই না যে, ‘একটা কাজ’ বলে মদন মিত্র তাকে ভোটের প্রচারে নিয়ে যাবেন।

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশে আমার মা থাকেন। তিনি অসুস্থ। তাকে এখনো কিছু জানাইনি। সবাই টেনশন করবে। জানি না এখন কী হবে। তবে বিশ্বাস করুন আমি সত্যিই জানতাম না ওটা ভোটের প্রচার ছিল। তা হলে যেতামই না।’

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ভারত গাজী আবদুন নুর

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0187 seconds.