• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৪ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৩৫:০০
  • ১৪ এপ্রিল ২০১৯ ০০:৩৫:০০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মঙ্গল শোভাযাত্রা : কওমি শিক্ষার্থীদের সিদ্ধান্তে পরিবর্তন

ছবি : সংগৃহীত

পহেলা বৈশাখে মঙ্গল শোভাযাত্রা প্রতিহত করার যে ঘোষণা দিয়েছিলো তা থেকে সরে এসেছে কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। শনিবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর আগে সন্ধ্যায় সমাবেশ করে মঙ্গল শোভাযাত্রা প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছিলো কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, ‘আমরা কওমি ছাত্র ঐক্যপরিষদের জেলা শাখার নেতাদের সঙ্গে কথা বলেছি। জামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষা সচিব মাওলানা আব্দুর রহিম কাসেমী হুজুরের সঙ্গেও আমার কথা হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ- দৌলা খানও তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। আমরা তাদেরকে বোঝাতে চেষ্টা করেছি, যে এটা রাষ্ট্রীয় প্রোগ্রাম। তারা সর্বশেষ আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। আগামীকাল রবিবার কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা হবে না বলে তারা আমাদেরকে আশ্বস্থ করেছেন।’

তবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি কওমি ছাত্র ঐক্য পরিষদের জেলা শাখার সভাপতি হাফেজ মাওলানা মাসুদুর রহমান।

এর আগে শনিবার (১৩ এপ্রিল) সন্ধ্যায় শহরের জামিয়া ইউনুছিয়া ইসলামীয়া মাদ্রাসা থেকে পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রাকে ইসলামের দৃষ্টিতে হারাম বলে আখ্যায়িত করে বিক্ষোভ মিছিল বের করে কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। পরে প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ করে মঙ্গল শোভাযাত্রাকে হিন্দু এবং খ্রিস্টান সংস্কৃতির অংশ বলে আখ্যায়িত করে আগামীকাল ফজরের নামাজের পর মাঠে থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা প্রতিহত করার ঘোষণা দেন তারা।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0200 seconds.