• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৯ এপ্রিল ২০১৯ ১৪:৪০:৩৩
  • ০৯ এপ্রিল ২০১৯ ১৪:৪৬:৩৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বেশি দাম নিচ্ছে ইউনিলিভার, ‘ভাবার কিছু না’ বললেন গোলাম রহমান

গোলাম রহমান। ছবি: সংগৃহীত

ভোক্তারা যৌক্তিক বা ন্যায্য র চেয়েও বেশী দামে পণ্য ক্রয় করলেও তাতে ভাবার কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন ভোক্তাদের স্বার্থ নিয়েকাজ করা প্রতিষ্ঠান কনজুমার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র (ক্যাব) সভাপতি গোলাম রহমান। সোমবার বাংলা’র কাছে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

ইউনিলিভার বাংলাদেশ ভোক্তাদের কাছে অযৌক্তিকভাবে দাম নেয়ার বিষয়ে বাংলা ধারাবাহিকভাবে তিনটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেখানে দেখা যায়, ইউনিলিভার বাংলাদেশ তার ভোক্তাদের কাছ থেকে অতিরিক্ত মুনাফা আদায় করছে।

বিষয়টি নিয়ে ক্যাব সভাপতি গোলাম রহমানের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি জানান, ‘মূলত মোড়কের জন্য বড় পণ্যে দামের এমন গড়পড়তা হয়েছে। পণ্য যখন পরিমাণে বেশি হয় তখন মোড়ক/প্যাকিংয়ের ব্যাপারটাও উন্নতভাবেই করতে হয়। তাই এমনটা হয়েছে। এটা ভাবার মত তেমন কিছু না।’

ইউনিলিভারের ১ মি. লি.  সানসিল্ক শ্যাম্পুর দাম ৩৩ পয়সা (৬ মি. লি. শ্যাম্পুর দাম ২ টাকা ধরে)। সে হিসাবে ১৮০ মি.লি.’র বোতলজাত শ্যাম্পুর দাম হওয়ার কথা ৬০ টাকা। কিন্তু সেটি বিক্রি হচ্ছে ১৬৫ টাকায়। বোতলের গায়েই এই দাম লেখা। ইউনিলিভার বেশি নিচ্ছে ১০৫ টাকা!

একই ভাবে ৩৭৫ মি. লি.'র দাম আসে ১২৫ টাকা। কিন্তু বিক্রি হচ্ছে ২৯০ টাকায়। এখানেও সাধারণ মানুষকে বেশি গুনতে হচ্ছে ১৬৫ টাকা।

ক্লিয়ার শ্যাম্পু প্রতি মিলির দাম ৬০ পয়সা হলে (৫ মিলি মিনিপ্যাকের দাম ৩ টাকা ধরে)। ৩৫০ মিলি বোতলের দাম হওয়ার কথা ২১০ টাকা। কিন্তু তারা বিক্রি করছে ৩৩০ টাকায়। প্রতি বোতলে ১২০ টাকা বেশি নিচ্ছে।

একই ভাবে ১৮০ মিলি’র দাম হওয়ার কথা ১০৮ টাকা, তারা বিক্রি করছে ১৯০ টাকায়। এখানে বেশি নিচ্ছে ৮২ টাকা। ৯০ মিলির দাম হওয়ার কথা ৫৪ টাকা, কিন্তু ইউনিলিভার খুচরা মূল্য নির্ধারণ করেছে ৯৫ টাকা। এখানে ৪১ টাকা বেশি নিচ্ছে।

ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ১ গ্রামের দাম ১ টাকা ৬৬ পয়সা (৯ গ্রামের দাম ১৫ টাকা ধরে)। সে হিসেবে ২৫ গ্রামের দাম হওয়ার কথা ৪১ টাকা ৬৬ পয়সা। অথচ সেখানে ভোক্তাকে গুনতে হচ্ছে ৬০ টাকা। ইউনিলিভার তাদের হিসাবমতেই ১৮ টাকা ৪৪ পয়সা বেশি নিচ্ছে। একইভাবে ৫০ গ্রাম টিউবের দাম পড়ার কথা ৮৩ টাকা ৩৩ পয়সা। কিন্তু তারা নিচ্ছে ১১৫ টাকা। ক্রেতাকে বেশি দিতে হচ্ছে প্রায় ৩২ টাকা।

প্রকাশনা শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা বলছেন, ইউনিলিভার  পরিমাণ টাকা বেশি নিচ্ছে তা মোড়কের জন্য হবার কথা নয়। মোড়ক তৈরি এত খরচ হওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। সামান্য দু-এক টাকা খরচ হতে পারে প্রতি মোড়কে।

বাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0181 seconds.