• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৫ এপ্রিল ২০১৯ ২০:১২:৪৬
  • ০৫ এপ্রিল ২০১৯ ২০:১২:৪৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ব্রেক্সিটের জন্য ৩০ জুন পর্যন্ত সময় চাইলেন মে

ছবি : সংগৃহীত

ইউরোপীয় ইউনিয়ন(ইইউ) থেকে ব্রিটেনের বিচ্ছেদ অর্থাৎ ব্রেক্সিটের জন্য ৩০জুন পর্যন্ত সময় বাড়ানোর জন্য ইইউর কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। শুক্রবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ইউরোপীয় ইউনিয়ন কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্কের কাছে লেখা এক চিঠিতে এই আবেদন জানান।    

থেরেসা মে লিখেন, যুক্তরাজ্যের প্রস্তাব অনুযায়ী, এই বাড়ানো সময় ২০১৯ সালের ৩০ জুনে শেষ হবে। তবে যদি সব দল এই সময়ের আগেই অনুমোদন দিতে সক্ষম হয় তাহলে সরকারের প্রস্তাব অনুসারে এর আগেই এটি বাতিল করা হবে।    

এদিকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিট থেকে মের চিঠি প্রকাশের আগেই ইইউর একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানান, ডোনাল্ড টাস্ক  সর্বোচ্চ এক বছরের জন্য ব্রেক্সিটের সময় বাড়ানোর প্রস্তাব করতে যাচ্ছেন।  এছাড়া যুক্তরাজ্য এবং ইইউর প্রত্যাহার করা চুক্তির সংসদীয় অনুমোদনের বিষয়টিও স্থগিত করা হচ্ছে।        

ইইউ থেকে ব্রিটেনের বিচ্ছেদের সময়সীমা ১২ এপ্রিল শেষ হবে।  অবশ্য ২০১৬ সালে এক গণভোটের মাধ্যমে ব্রিটেনবাসী যখন ব্রেক্সিটের পক্ষে রায় দিয়েছিল তখন চলতি বছরের ২৯ মার্চ ব্রেক্সিট কার্যকরের সময়সীমা নির্ধারিত ছিল। কিন্তু ব্রেক্সিট কার্যকরের পন্থা নিয়ে ব্রিটিশ আইন প্রণেতাদের মত পার্থক্যের কারণে থেরেসা মে ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেয়ার জন্য ইইউর কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন।

মূলত গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ইইউ নেতাদের সঙ্গে যে ব্রেক্সিট চুক্তি করেছিলেন সেটা নিয়েই বেশিরভাগ ব্রিটিশ আইন প্রণেতার আপত্তি রয়েছে। বিশেষ করে চুক্তির উত্তর আয়ারল্যান্ড সীমানা নির্ধারণ বিষয়টি নিয়েই তাদের মূল সমস্যা ছিল।

থেরেসা মে তার চিঠিতে লিখেন, ৪৬ বছর পর ব্রিটেন এই ব্লক থেকে সুশৃংখল্ভাবে বের হতে চায়।  তারা এমন একটি চুক্তির মাধ্যমে বের হতে চায় যা রাজনীতির জটিলতা থেকে মুক্ত হয়ে, নিরাপত্তা, কূটনৈতিক এবং অর্থনৈতিক বন্ধন তৈরিতে সাহায্য করবে।   

তিনি জানান, যুক্তরাজ্য সরকারের নীতি হলো, ইইউ থেকে সুশৃংখলভাবে বের হওয়া এবং এতে অহেতুক বিলম্ব যেন না ঘটে তা দেখা। পাশাপাশি তিনি আরো উল্লেখ করেন, চুক্তিসহ ব্রেক্সিট কার্যকর করাই সবচেয়ে ভালো উপায়।

বাংলা/এফকে  

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0286 seconds.