• বিদেশ ডেস্ক
  • ৩১ মার্চ ২০১৯ ২১:৪২:৩৬
  • ৩১ মার্চ ২০১৯ ২১:৪২:৩৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

জেফ বেজোসের ফোন হ্যাক করেছিল সৌদি আরব

জেফ বেজোস ছবি : সংগৃহীত

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেফ বেজোসের ফোন সৌদি কর্তৃপক্ষ হ্যাক করেছিল বলে জানিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা।  বেজোসের ব্যক্তিগত তথ্য চুরির উদ্দেশ্যে তার ফোন হ্যাক করা হয়েছিল বলে দাবি করেন তিনি।

শনিবার নিরাপত্তা বিশ্লেষক এবং বেজোসের ফোন হ্যাকের তদন্ত কর্মকর্তা গ্যাভিন ডি বেকার জানান, সৌদি সরকার আমাজন প্রধানের ফোন হ্যাক করে তার ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে।  প্রসঙ্গত, গত জানুয়ারিতে বেজোস এবং সাবেক টিভি উপস্থাপিকা লরেন সানচেজের মধ্যে আদান প্রদান করা বার্তা ফাঁস হয়ে যায়।  

ট্যাবলয়েড পত্রিকা ন্যাশনাল এনকুইরার এই বার্তা ফাঁস করে দিয়ে জানায়, জেফ বেজোস এবং লরেন সানচেজ প্রেম করছেন।  এদিকে গত মাসে আমাজন প্রধান অভিযোগ করেন, ন্যাশনাল এনকুইরারের মালিক সানচেজের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ ছবি প্রকাশ করার হুমকি দিয়ে তাকে ব্ল্যাকমেলিং করার চেষ্টা করছেন।   

উল্লেখ্য, জেফ বেজোস প্রভাবশালী মার্কিন পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্টেরও মালিক।  মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এই পত্রিকায়ই সৌদি ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগি কলাম লিখতেন।  এছাড়া খাশোগির হত্যাকাণ্ড এবং তার বিচার নিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট সোচ্চার ভূমিকা পালন করছে।  ফলে স্বাভাবিকভাবেই সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান(এমবিএস) জেফ বেজোসের উপর ক্ষুব্ধ হবেন। কেন না এই এমবিএসকেই খাশোগি হত্যার মূল হোতা হিসেবে ভাবা হচ্ছে।

এদিকে মার্কিন সংবাদভিত্তিক ওয়েবসাইট ডেইলি বিস্টে ডি বেকার লিখেন, ‘আমাদের তদন্ত কর্মকর্তারা এবং বেশ কয়েকজন বিশেষজ্ঞ সবকিছু বিচার বিশ্লেষণ করে এই উপসংহারে পৌঁছেছে যে সৌদিরা বেজোসের ফোনে প্রবেশ করেছে এবং ব্যক্তিগত তথ্য লাভ করেছে। ’

তিনি আরো লিখেন, ‘এটা পরিস্কার যে এমবিএস ওয়াশিংটন পোস্টকে প্রধান শত্রু  হিসেবে বিবেচনা করে। ’ তবে সৌদি সরকারের কোন অংশটি বেজোসের ফোন হ্যাকের সঙ্গে জড়িত সে ব্যাপারে তিনি সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য দেননি।  এছাড়া ফোন হ্যাকের তদন্তের ব্যাপারে খুব সামান্য কিছুই উল্লেখ করেন তিনি।  

ফোন হ্যাকের ঘটনা তদন্তের জন্য গ্যাভিন ডি বেকারকে নিয়োগ দিয়েছিলেন আমাজন প্রধান।  ইনকুইরারে তার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা প্রকাশিত হলে তাদের দীর্ঘদিনের দাম্পত্য জীবন এলোমেলো হয়ে যায়। অবশেষে  স্ত্রীর সঙ্গে বেজোসের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।

বাংলা/এফকে

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0194 seconds.