• বিদেশ ডেস্ক
  • ৩১ মার্চ ২০১৯ ২০:৩৩:১৭
  • ৩১ মার্চ ২০১৯ ২০:৩৩:১৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

খাশোগির হত্যাকারীরা যুক্তরাষ্ট্রে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল

ছবি : সংগৃহীত

সৌদি ভিন্ন মতাবলম্বী জামাল খাশোগিকে হত্যায় নিয়োজিত সৌদি টিমের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল বলে জানিয়েছে মার্কিন পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্ট।  এই খবরের ফলে পত্রিকাটির সাবেক কলাম লেখক খাশোগির হত্যাকাণ্ডের ক্ষেত্রে আরো নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে।  

২৯ মার্চ ওয়াশিংটন পোস্টে প্রকাশিত একটি লেখায় কলামিস্ট ডেভিড ইগনাশিয়াস জানান, তিনি ডজনখানেকের বেশি মার্কিন এবং সৌদি সূত্রের সাক্ষাতকার নিয়েছেন।  নাম না জানানোর শর্তে তারা জানিয়েছেন,খাশোগিকে হত্যা করার জন্য তুরস্কে সৌদি আরবের একটি গ্রুপের যে সদস্যরা গিয়েছিলেন তাদের মধ্যে কয়েকজন যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রশিক্ষণ পেয়েছিল।  

সৌদি আরবের সঙ্গে চলমান মার্কিন সামরিক সংযোগের অংশ হিসেবেই এই প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছিল।  জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডের আগেই এই প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।  তবে এরপর এই কর্মসূচি বন্ধ হয়ে যায়।

ডেভিড ইগনাশিয়াস উল্লেখ করেন, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ অন্যান্য সরকারী সংস্থাগুলোকে সতর্ক করে জানিয়েছিল বিশেষ এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি আরকানসাসভিত্তিক কোম্পানি টাইয়ের-১ গ্রুপের অধীনে পরিচালিত হবে।  কোম্পানিটি মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের লাইসেন্সপ্রাপ্ত।

তিনি জানান, খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর মার্কিন-সৌদি নিরাপত্তা বিনিময় কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমানের (এমবিএস) সমালোচক হিসেবে সুপরিচিত জামাল খাশোগি গত বছরের ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর নিহত হন।  রিয়াদ থেকে পাঠানো ১৫ সদস্যের একটি টিম তার হত্যাকাণ্ডে নিয়োজিত ছিল বলে জানা গেছে।  তবে তাকে হত্যার পর তার মরদেহ এখনো উদ্ধার করা যায়নি। হত্যাকারীরা খাশোগির মরদেহ নিয়ে কি করেছে সেটি এখনো রহস্যই রয়ে গেছে। 

খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করার জন্য এমবিএস আদেশ দিয়েছে বলে দাবি করেছে তুরস্ক এবং মার্কিন সিনেট। কিন্তু সৌদি কর্তৃপক্ষ বরাবরই এই দাবিকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

বাংলা/এফকে

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0260 seconds.