• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৭ মার্চ ২০১৯ ২০:৩২:৪৬
  • ২৭ মার্চ ২০১৯ ২০:৩২:৪৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ইসরায়েলকে গোলান মালভূমি দেয়ার অধিকার যুক্তরাষ্ট্রের নেই : এরদোয়ান

ছবি : সংগৃহীত

গোলান মালভূমি ইসরায়েলকে দেয়ার আইনগত কোন অধিকার যুক্তরাষ্টের নেই বলে জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান।  ইস্তাম্বুলের এক নির্বাচনী র‍্যালিতে বক্তৃতা দেয়ার সময় তিনি এই মন্তব্য করেন।

মঙ্গলবার ইস্তাম্বুলে এরদোয়ান উল্লেখ করেন, ৯ এপ্রিল ইসরায়েলের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু যেন পুনরায় নির্বাচিত হতে পারে সেজন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই উদ্যোগ নিয়েছেন।   

তিনি বলেন, ‘মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুকে যুক্তরাষ্ট্রে আসার আমন্ত্রণ করেন।  এরপর তিনি গোলান মালভূমিতে ইসরায়েলের অধিকার সংক্রান্ত ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেন।  ইসরায়েলের নির্বাচনের কারণেই এটি ঘটেছে।  নির্বাচনে নেতানিয়াহুর প্রতি ভোটারদের সমর্থন যেন বেড়ে যায় সেটা নিশ্চিত করার জন্য এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ’   

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট জানান, জাতিসংঘের প্রস্তাব অনুযায়ী, গোলান মালভূমি সম্পূর্ণভাবেই সিরিয়ার।  অথচ যুক্তরাষ্ট্র এই অঞ্চলটিকে ইসরায়েলের কাছে দেয়ার চেষ্টা করছে।  তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের এটা করার আইনি কোন অধিকার নেই। ’

এরদোয়ান উল্লেখ করেন, গোলান মালভূমি সংক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি), রাশিয়া এবং চীনের কোন সমর্থন নেই।  তিনি বলেন, ‘সাহসের সঙ্গে সত্য কথা বলা আমাদের দায়িত্ব। ’   

প্রসঙ্গত,তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ওআইসির বর্তমান সভাপতির দায়িত্ব্বে আছেন। এই প্রসঙ্গে এরদোয়ান জানান, ওআইসির সভাপতি হিসেবে গোলান মালভূমি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এই ধরনের পদক্ষেপের বিরোধিতা করা তার দায়িত্ব এবং ভবিষ্যতেও এটি অব্যাহত রাখবেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২৫ মার্চ গোলান মালভূমিকে ইসরায়েলের ভূখন্ড হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিয়ে একটি ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

এদিকে জাতিসংঘ জানিয়েছে, ট্রাম্পের স্বীকৃতি সত্ত্বেও আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে গোলান মালভূমিকে এখনো ইসরায়েল ‘দখলকৃত অঞ্চল’ হিসেবেই বিবেচনা করা হবে।  উল্লেখ্য,  ১৯৬৭ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের সময় সিরিয়ার গোলান মালভূমি দখল করে নেয় ইসরায়েল।  এরপর থেকে আন্তর্জাতিক বিরোধিতা উপেক্ষা করেই অঞ্চলটি নিজেদের দখলে রেখেছে তারা।

বাংলা/এফকে  

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0087 seconds.