• ১৫ মার্চ ২০১৯ ১৫:৪৩:২২
  • ১৫ মার্চ ২০১৯ ১৫:৪৩:২২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

‘ফোরজির যুগে তো টুজি-ই পাই না’

ছবি : সংগৃহীত

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: 

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দেশে ক্রমেই ইন্টারনেট সেবার প্রসার হচ্ছে। গ্রাম-গঞ্জে স্মার্টফোন ও ইন্টারনেট সেবা চালু হয়েছে। দেশে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি করতে ২০১৩ সালের ৮ সেপ্টেম্বর থ্রিজি সেবা চালু করা হয়। 

আর চতুর্থ জেনারেশন বা চতুর্থ প্রজন্মের ইন্টারনেট সেবা চালু হয় ২০১৮ সালের  ১৯ ফেব্রুয়ারি। এ সেবা চালুর এক বছর পেরিয়ে গেলেও কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত ময়মনসিংহের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তাসহ বসবাস করা অন্যান্য মানুষরা। 

মানসম্মত ইন্টারনেট সেবা না পাওয়া গ্রাহকদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ লক্ষ্য করা যায়। গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবি, টেলিটক কোনো মোবাইল নেটওয়ার্ক কোম্পানির ফোরজি সেবার মানই সন্তোষজনক নয়। বেশ কয়েকজন গ্রাহকের সঙ্গে কথা বললে তারা বাংলা'কে এই বিষয়ে অভিযোগ করেন। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর উজ্জ্বল কুমার প্রধান বলেন, ‌‌‘ডিজিটাল সময়ে এসে এই নেটওয়ার্ক বিভ্রাট লজ্জাজনক। বারবার অভিযোগ দেয়ার পরও কোনও সমাধান হয়নি।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সমিতির সহ-সভাপতি সরকার আব্দুল্লাহ তুহিন জানান, বাংলালিংক সিম অনেক দিন ধরেই ব্যবহার করছি। বিশ্ববিদ্যালয় অঞ্চলে নেটওয়ার্ক নেই বললেই চলে। বারবার অভিযোগ দিয়েছি, তারা কেবল বলে সাময়িক অসুবিধার জন্যে আমরা দুঃখিত। অল্প সময়ের মধ্যে সমস্যার সমাধান হবে। কিন্তু এখনও তাদের অল্প সময় শেষ হয়নি।

লোকপ্রশাসন ও সরকার পরিচালন বিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী জয় নন্দী বাংলা'কে জানান, ক্যাম্পাস এরিয়ায় কোনো সিমেরই ভাল নেটওয়ার্ক পাওয়া দুষ্কর। তবুও জিপির মাঝেমাঝে থ্রিজি পাওয়া যায়। কিন্তু বাংলালিংক, এয়ারটেল এসব সিমের থ্রিজি তো দূরের কথা, টুজি’ই ঠিক করে পাওয়া যায় না। সারাদেশে এখন ফোরজির যুগ চলছে। কিন্তু এই যুগেও আমরা টুজি সেবাই পরিপূর্ণভাবে পাচ্ছি না, যা নিতান্তই বিব্রতকর। ক্যাম্পাস এরিয়ায় এই সমস্যার আশু প্রতিকার হওয়া এখন জরুরি হয়ে পড়েছে।

ইইই বিভাগের শিক্ষার্থী রাগীব রাইয়্যান জানান, বাংলাদেশের ফোরজি সংযোগের পেরিয়ে গেছে। কিছুদিন পরে ৫জি এসে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিচ্ছে তবুও আমাদের জাককানইবি তে অর্থাৎ  ত্রিশালের বটতলার পাশে গড়ে উঠা জাতীয় কবি কাজি নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ইন্টারনেট এর ৩জি/৪জি নেটওয়ার্ক পাওয়া যায় না৷ এমতাবস্থায় আমাদের ছাত্র-ছাত্রীরা ইন্টারনেট থেকে জ্ঞ্যান আহরণ করা ও নানান সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিষয়টি দেখার জন্যে অনুরোধ করছি।

স্থানীয় সরকার ও নগর উন্নয়ন বিভাগের শিক্ষার্থী কবির আনন্দ ফোরজি সেবার মান সম্পর্কে জানতে চাইলে জানান, থ্রিজিই পাওয়া যায় না, আবার ফোরজি! গ্রামীণফোনের  নেটওয়ার্ক ক্যাম্পাসে টুকটাক পাওয়া গেলেও বাকি গুলোর অবস্থা খুবই খারাপ। আর নজরুল জাদুঘর সংলগ্ন আমার ছাত্রাবাসে কোনো নেটই কাজ করে না! খুবই অসন্তোষজনক ফোরজি সংযোগ।

ডিজিটাল যুগে এসে এই বিভ্রাট যেন আর না চলে এবং নেটওয়ার্ক সমস্যার সমাধান করবে কর্তৃপক্ষ এমনটাই দাবি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার গ্রাহকদের।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ফোরজি টুজি

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0196 seconds.