• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৪ মার্চ ২০১৯ ১৭:৫৫:৪৯
  • ১৪ মার্চ ২০১৯ ১৭:৫৫:৪৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মার্সেলের নতুন লোগো উন্মোচন

ছবি : সংগৃহীত

উন্মোচন হলো মার্সেলের নতুন লোগো। উন্মোচিত হলো সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত। দেশের ইলেকট্রনিক্স পণ্যের জগতে শীর্ষস্থানে পৌঁছানোর লক্ষ্যে শুরু হলো মার্সেলের নতুন যাত্রা। বিশ্বব্যাপী ব্র্যান্ডিং একটি চ্যালেঞ্জিং কাজ। সেই চ্যালেঞ্জে জয়ী হতে সময়োপযোগী রোডম্যাপ এবং নতুন লোগো নিয়ে শুরু হলো আগামির জয়যাত্রা। দ্রুত পরিবর্তনশীল ইলেকট্রনিক্স ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নিতে মার্সেলের এই নবযাত্রা। 

বৃহস্পতিবার গাজীপুরের চন্দ্রায় প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব কারখানায় দেশের ইলেকট্রনিক্স পণ্য ব্যবসায়ীর উপস্থিতিতে মার্সেলের নতুন লোগো উন্মোচন করা হয়। কাটা হয় মার্সেলের নতুন লোগো সম্বলিত বিশালাকার কেক। নতুন লোগো উন্মোচন করেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক এস এম নূরুল আলম রেজভী, এস এম শামসুল আলম এবং এস এম আশরাফুল আলম।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক এস এম রেজাউল আলম, নির্বাহী পরিচালক ইভা রিজওয়ানা, মার্সেলের হেড অব সেলস ড. সাখাওয়াত হোসেন এবং ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর চিত্রনায়ক আমিন খানসহ ঊদ্ধর্তন কর্মকর্তাগণ।

উল্লেখ্য, এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে ‘লেটস এচিভ দ্য গোল টুগেদার’ স্লোগানে শুরু হয় মার্সেল পেিরবশক সম্মেলন -২০১৯’। যেখানে অংশ নেন দেশের শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স পণ্য ব্যবসায়ীরা। বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধনের পর কেক কেটে নতুন লোগো উন্মোচন করা হয়।

নতুন লোগো উন্মোচন করে এস এম আশরাফুল আলম বলেন, মার্সেল ইলেকট্রনিক্স জগতে একটি টর্নেডো। দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে চলছে মার্সেল। আজ আমরা নতুনভাবে, নতুন উদ্যমে যাত্রা শুরু করলাম। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস খুব শিগগিরই ইলেকট্রনিক্স পণ্যের জগতকে নেতৃত্ব দেবে মার্সেল। সময় এখন মার্সেলের।

মার্সেল কর্তৃপক্ষের দাবি স্থানীয় বাজারে প্রতিষ্ঠানটির মার্কেট শেয়ার দ্রুত বাড়ছে। ইলেকট্রনিক্স পণ্য বিক্রিতে ২০১৮ সালে ৪০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে। এ বছর লক্ষ্য ৮০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন। লক্ষ্য পূরণে ইতোমধ্যেই অভাবনীয় সাফল্য পাওয়া গেছে। গত বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসের তুলনায় এ বছরের প্রথম দুই মাসে ২০১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রেখে ২০২১ সালের মধ্যেই মার্সেলকে দেশের শীর্ষ ব্র্যান্ডে পরিণত করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছেন তারা। 

প্রতিষ্ঠানটির ক্রিয়েটিভ এ্যান্ড পাবলিকেশন বিভাগের নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম বলেন, দেশের এক হাজারেরও বেশি শীর্ষ ব্যবসায়ীর উপস্থিতিতে লোগো উন্মোচন একটি ঐতিহাসিক ঘটনা। মার্সেলকে শীর্ষ পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমরা নতুন রোডম্যাপ তৈরি করেছি। নতুন কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি। যার প্রথম ধাপ সম্পন্ন হলো নতুন লোগো উন্মোচনের মধ্য দিয়ে। নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে নব উদ্যমে কাজ করছি আমরা। 

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ব্যবসায়ীরা সম্মেলনে যোগ দিতে মার্সেল কারখানায় আসতে থাকেন। এরপর তারা সরেজমিনে বিশ্বের লেটেস্ট প্রযুক্তি ও মেশিনারিজ সমৃদ্ধ বিভিন্ন মার্সেল পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়া দেখেন।  

সম্মেলনে দেশীয় বাজারে মার্সেলের শেয়ার বৃদ্ধিতে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সেরা ডিস্ট্রিবিউটরদের পুরস্কৃত করা হয়। ১২ জন নারী উদ্যেক্তাকে দেয়া হয় বিশেষ সম্মাননা। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনব্যাপী জমকালো এই আয়োজনের পর্দা নামে।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মার্সেল উন্মোচন লোগো

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0200 seconds.