• ফিচার ডেস্ক
  • ০৬ মার্চ ২০১৯ ১৩:৫৪:০১
  • ০৬ মার্চ ২০১৯ ১৩:৫৪:০১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে বেল পাতা

ছবি : সংগৃহীত

বেল একটি পুষ্টিকর আর উপকারী ফল। কাঁচা পাকা দুটোই সমান উপকারী। কাঁচা বেল ডায়রিয়া ও আমাশায় রোগে ধন্বন্তরী। বেলের শরবত বেশ সুস্বাদু, পুষ্টিকর ও ক্লান্তিরোধক। বিশেষ করে গরমের প্রকোপ থেকে বাঁচাতে এই ফল খুবই কার্যকরী।

এতে স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী ট্যানিন, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ফাইবার, প্রোটিণ এবং আয়রনের মতো পুষ্টি উপাদান রয়েছে।

আসুন জেনে নিন বেল ও বেল পাতা খেলে যেসব স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যাবে...

১. বেলে থাকা অ্যান্টি-ফাঙ্গাল, অ্যান্টি-প্যারাসাইট উপাদান হজমের জন্য বেশ উপকারী।

২. বেলের শরবৎ শরীর ঠাণ্ডা করে। প্রচণ্ড গরমে নাক থেকে রক্তপাত হলে এই ফলের শরবৎ ওষুধ হিসেবে খাওয়ানো যায়।

৩. বেল পেট ব্যাথা, গ্যাস, ডায়রিয়া এবং পেট খারাপের সমস্যা থেকেও মুক্তি দেয়। কারও এ ধরনের সমস্যা থাকলে সপ্তাহে ২ থেকে ৩ টি বেল পাতা খেলে উপকার করেন।

৪. বেল ভিটামিন সি-এর ভাল উৎস। ভিটামিন সি-এর অভাবে স্কার্ভি রোগ হয়, বেল পাতার রস খেলে এ ধরনের রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৫. ভিটামিন সি-এর পরিপূরক হওয়ায় বেল শরীরের কার্যকারিতা বাড়ায়। কিডনির জন্যও বেল বেশ উপকারী।

৬. বেলে থাকা বিটা-ক্যারোটিন যকৃতকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

৭. শরীরের ইনসুলিন এবং গ্লুকোজ লেভেল নিয়ন্ত্রণ করায় বেল পাতার রস ডায়াবেটিসের জন্য উপকারী। 

৮. বেল পাতার রস রক্তে কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমায়। সেই সঙ্গে নানা রোগ প্রতিরোধ করে। 

৯. মধু ও গোল মরিচের সঙ্গে বেল পাতার রস মিশিয়ে খেলে জণ্ডিস দ্রুত ভাল হয়। 

১০. বেল পাতার রস উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

বাংলা/এবি

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0187 seconds.