• বাংলা ডেস্ক
  • ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ২২:২৭:৩৯
  • ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ২২:২৭:৩৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কুড়িয়ে পাওয়া ৪ লাখ টাকা ফেরত দিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা

ছবি : সংগৃহীত

সোমবার বিকেলে ঢাকায় কাজ শেষে ঢাকা ম্যাচ ফ্যাক্টরীর সামনে থেকে নারায়ণগঞ্জের বাড়ি ফিরতে সিএনজিতে ওঠেন বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা সারোয়ার জাহান। সিএনজিতে উঠেই তিনি একটি ব্যাগ দেখতে পান। ব্যাগটি সর্ম্পকে সিএনজি চালক সোহাগ মোল্লাকে জিজ্ঞেস করলে সে ব্যাগের বিষয়ে কিছু বলতে পারেননি। পরে ব্যাগটি খুলে সারোয়ার এক হাজার টাকার ৩টি এবং ৫০০ টাকার দুটি ব্যান্ডেলসহ মোট ৪ লাখ টাকা ও একটি পাসপোর্টের ফটোকপি দেখতে পান।   

এতে তার বুঝতে বাকি থাকে না যে, ব্যাগটি কোন যাত্রী ভুল করে ফেলে গেছেন। ব্যাগ ভর্তি টাকা পেয়ে সারোয়ার জাহান সিএনজি নিয়ে সোজা চলে যান নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানায়। ব্যাগটি তুলে দেন থানার ওসি শাহ মঞ্জুর কাদেরের হাতে। অনুরোধ করেন, যেন প্রকৃত মালিককে খুঁজে টাকাটা ফেরত দেওয়া হয়। সততার এই বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী সারোয়ার জাহান বেসরকারি ইউসিবিএল ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ শাখায়  জুনিয়র অফিসার পদে কর্মরত।

এদিকে টাকার ব্যাগ হারিয়ে পাগল প্রায় মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ি থানার বাসিন্দা শাহিন শিকদার। তিনি সোমবার সন্ধ্যায় মুন্সীগঞ্জের স্থানীয় সিএনজি স্ট্যান্ডে গিয়ে টাকা হারানোর বিষয়টি জানিয়ে ওই সিএনজি চালককে খুঁজতে থাকেন। ওই সময় সিএনজি চালক সোহাগ মোল্লা স্ট্যান্ডে উপস্থিত হন। সব শুনে সোহাগ বুঝতে পারেন তার সিএনজিতে যে টাকার ব্যাগটি পাওয়া গেছে সেটির মালিক শাহিন শিকদার। দেরী না করে সোহাগ মোল্লা শাহিন শিকদারকে ফতুল্লা মডেল থানায় নিয়ে যান। থানায় উপস্থিত পুলিশ সদস্যগণ শাহিন শিকদারের কাছ থেকে পার্সপোর্টের আরেকটি ফটোকপি এবং জাতীয় পরিচয় ফটোকপি রেখে টাকা বুঝিয়ে দেন। 

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি শাহ মঞ্জুর কাদের বলেন, ‘কুড়িয়ে পাওয়া টাকা ফেরত দিয়ে সততার পরিচয় দিয়েছেন সারোয়ার জাহান। বর্তমান সময়ে তার মতো সৎ মানুষ খুঁজে পাওয়া বিরল। টাকা ফেরত পেয়ে শাহিন শিকদার আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করেন এবং সারোয়ার জাহানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।’ 

বাংলা/এসি 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0196 seconds.