• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১১:৫১:৩৩
  • ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১১:৫১:৩৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

প্রথা ভেঙে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী হলেন থাই রাজকন্যা

ছবি : সংগৃহীত

থাইল্যান্ডের জাতীয় নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী পদে নির্বাচনে নামছেন দেশটির রাজকন্যা উবনরাত শ্রীভাদানা বারনাভাদি। তিনি রাজা মহা ভাজিরালংকর্নের বড় মেয়ে। এই প্রথম রাজপরিবারের কোনো সদস্য রাজনীতিতে সরাসরি যুক্ত হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার মিত্রদের প্রতিষ্ঠিত দল থাই রাকসা চার্ট থেকে মনোনয়ন পান উবনরাত।

এদিকে শুক্রবার আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রার্থী হিসেবে ৬৭ বছর বয়সী রাজকন্যার নিবন্ধন থাই রাজনীতির ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা।

১৯৭২ সালে এক মার্কিন নাগরিককে বিয়ে করে নিজের রাজকীয় পদবি হারান উবনরাত। বিবাহবিচ্ছেদের পর নব্বইয়ের দশকে তিনি থাইল্যান্ডে ফিরে আসেন।

যদিও তার আনুষ্ঠানিক রাজকীয় পদবি তিনি ফিরে পাননি। তবে থাই জনগণ তাকে রাজকীয় সম্মানে ভূষিত করে আসছেন।

উবনরাত দীর্ঘদিন ধরে সিনাওয়াত্রার পরিবারের বন্ধু হিসেবে পরিচিত। সিনাওয়াত্রার পরিবারের কোনো সদস্য এবারের নির্বাচনে সরাসরি যুক্ত না থাকলেও তার ছায়া রাজনৈতিক দলের মাধ্যমে একটি প্রভাব থেকেই যাবে।

এদিকে থাই সামরিক সরকারের প্রধান প্রিয়থ চান-ওচা জানিয়েছেন, সেনাবাহিনী সমর্থিত পালাং প্রাচারাট দলের হয়ে তিনিও প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী হচ্ছেন।

২০১৪ সালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইনলাক সিনাওয়াত্রাকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করেন সেনাপ্রধান প্রিয়ত চান-ওচা। রাজকন্যা উবনরাত তার অন্যতম প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হবেন বলে ধরে নেয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0189 seconds.