• বাংলা ডেস্ক
  • ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৭:৫৬:১৬
  • ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৭:৫৬:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সকালের নাস্তায় কী খাবেন?

ছবি: সংগৃহীত

দিনটা ভালো যাওয়ার জন্য দিনের শুরুটাও ভালো করে শুরু করা জরুরি। খাদ্যভাসের ক্ষেত্রেও ব্যাপারটি তাই। সকালের খাবারটা শরীর গঠন ও রোগ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে খুবই উপকারী।

অনিয়মিত জীবনযাপন ও অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাসের কারণে স্থুলতা, সুগার, উচ্চ রক্তচাপের মতো অসুখ বাসা বাঁধে শরীরে। চিকিৎসকরাও তাই খাবারদাবার নিয়ন্ত্রণের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। পুষ্টিবিদ ও ডায়াটেশিয়ানরাও তাই কখন কোন খাবার খাচ্ছেন, কত ক্ষণের বিরতিতে খাবার খাচ্ছেন, এ সবের ওপর খুবই জোর দিয়ে থাকেন।

চিকিৎসকদের মতে, খাদ্যগ্রহণের নিয়ম হওয়া উচিত ‘পিরামিড রুল’ মেনে। দিনের প্রথম খাবার তাই ভারী হওয়াই বাঞ্ছনীয়। এ দিকে লো ফ্যাট নো কার্বস ডায়েট না মেনে চলতে গিয়ে ব্রেকফাস্ট নিয়ে ধন্দে পড়ছেন অনেকেই।

কারও কারও ব্রেকফাস্টের তালিকায় আবার এমন কিছু থাকে, যা পেট ভরালেও শরীরের জন্য আখেরে ক্ষতিকর। আপনিও সে সব ভুল করে বসেছেন না তো? পরামর্শ দিলেন ভারতীয় পুষ্টিবিদ সুমেধা সিংহ।

# ব্রেকফাস্ট করার সময় নেই। একেবারে ভাত খেয়েই রওনা হতে হয় অফিসে। অনেকের ক্ষেত্রেই এমনটা ঘটে। সকালের প্রথম খাবারেই একগাদা শর্করা শরীরে না প্রবেশ করানোই ভাল। বরং ভাতের বদলে আটার রুটি খান। রুটির থেকে তৈরি হওয়া গ্লাইকোজেন ভাতের তুলনায় দ্রুত গলে। সঙ্গে রাখুন টক দই, কম তেলের সব্জি, বা চিকেন স্যুপ ও ডিম।

# ছুটির দিন মানেই লুচি-পরোটা দিয়েই ব্রেকফাস্ট চলে? এই অভ্যাস ছাড়ুন আজই। ময়দায় ফাইবার যেমন কম থাকে, তেমনই এতে ফ্যাট জমার সম্ভাবনাও অনেক বেশি। বরং দুধের সঙ্গে ওটস বা মুসলি খেতে পারেন। এতে পেটও ভরবে, পুষ্টিগুণও বাড়বে।

# অনেকেই ব্রেকফাস্টে টোস্ট আর কফি পছন্দ করেন। কফি বা ময়দার পাউরুটি কোনওটাই শরীরের জন্য খুব একটা উপকারীনয়। বরং পাউরুটি থেকে হজমের নানা সমস্যা ও ফ্যাট বাড়ার সম্ভাবনা থাকে। একান্তই পাউরুটি খেতে হলে ব্রাউন ব্রেড বেছে নিন। একেবারে কম ফ্যাটযুক্ত মাখন অল্প করে পাউরুটিতে মাখিয়ে খেতে পারেন সপ্তাহে দু’-তিন দিন।

# ফ্লেভারড দই একেবারে বাদ দিন। এতে শর্করা প্রচুর। তার চেয়ে সাধারণ টক দই যোগ করুন ব্রেকফাস্টে।

# ব্রেকফাস্টে ফলের রস খান রোজ? তা হলে বাড়িতেই রস করে খান। সবচেয়ে ভাল হয় যদি গোটা ফল খেতে পারেন। বাজারে সহজলভ্য প্যাকেটজাত ফলের রসে অ্যাডেড সুগার থাকে। যা শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

# প্যানকেক, পেস্ট্রি, কেক, চিপ্‌স এ সব খাবার কখনও স্বাস্থ্যকর নয়। অতিরিক্ত চিনি, নুন, তেল ইত্যাদি এ সব খাবারে থাকায় এদের বাদ দিন ডায়েট থেকে।

# চা-কফির নেশা থাকলে তা দিনের অন্য সময় খান। কিন্তু ব্রেকফাস্টে নয়। এমনিতেই সারা রাত পেট খালি রাখার পর সকালের খাবারই প্রথম শরীরে যায়, তাই খালি পেটে চা-কফি এড়িয়ে চলুন। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

সকালের নাস্তা খাবার

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0232 seconds.