• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১১ জানুয়ারি ২০১৯ ২১:০৩:৪৬
  • ১১ জানুয়ারি ২০১৯ ২১:০৩:৪৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে প্রেম, অতঃপর..

প্রতীকী ছবি

এক ইতালিপ্রবাসী যুবকের সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয় বরিশালের এক তরুণীর। এরপর প্রতিদিনই ফোনে কথা বলতেন তাঁরা। একটা সময় তাদের মধ্যে গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক। সেই সুবাধে একদিন তরুণীর বাড়িতে বেড়াতেও আসেন ওই যুবক। বাড়িতে পরিবারের কেউ না থাকার সুযোগে তরুণীর সাথে জোরপূর্বক শারিরীক সম্পর্কে লিপ্ত হয় ইতালিপ্রবাসী ওই যুবক। এরপর বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে বিষয়টি কাউকে না জানাতেও নিষেধ করেন তিনি।

এই ঘটনায় ধর্ষণের অভিযোগ এনে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার এক কলেজছাত্রী থানায় মামলা করেছে। ওই ছাত্রী গত বুধবার রাতে আগৈলঝাড়া থানায় মামলা করেন।

শুক্রবার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাঁকে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আগৈলঝাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘গত নভেম্বরের শেষদিকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ওই তরুণীর সঙ্গে ইতালিপ্রবাসী যুবক রিপন মাঝির (২৫) পরিচয় হয়। এরপর নিয়মিত ফোনে কথা বলতেন তাঁর। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।’

ওই ছাত্রীর অভিযোগ, ‘৫ জানুয়ারি সকালে রিপন মাঝি তাঁদের বাড়িতে আসেন। ওই সময় বাড়িতে পরিবারের কেউ ছিলেন না। কথাবার্তা বলার একপর্যায়ে রিপন মাঝি তাঁকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি রিপন মাঝির অভিভাবকদের জানানো হয়। পরে রিপন মাঝি তাঁকে বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে বিষয়টি পুলিশসহ কাউকে জানাতে নিষেধ করেন। পাঁচ দিন অতিবাহিত হলেও বিয়ের পদক্ষেপ না নেওয়ায় তিনি থানায় মামলা করেন।’

ওই কলেজছাত্রী বাদী হয়ে রিপন মাঝিকে প্রধান আসামি করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ২ / ৩ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন বলে জানান আগৈলঝাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নকিব আকরাম হোসেন। তিনি আরও জানান,ওই ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বাংলা/এআর

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

প্রেম ফেসবুক ধর্ষণ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0212 seconds.