• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৯:৫৮:৪৭
  • ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৯:৫৮:৪৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

প্রেমের টানে পাকিস্তান, জেল খেটে ফেরত

ছবি : সংগৃহীত

ভারতের কলেজ শিক্ষক হামিদ আনসারি অনলাইনে প্রেম করেছিলেন পাকিস্তানি এক নারীর সঙ্গে। আর সেই নারীর সঙ্গে দেখা করতে তিনি চলে যান পাকিস্তানের খাইবার পাকতুনখাওয়া প্রদেশে। বিনা পাসপোর্টেই সীমান্তরক্ষীদের চোখ ফাঁকি দিয়ে চলে যান পাকিস্তানে। এমন খবরই প্রকাশ করেছে বিবিসি।

পাকিস্তানে হামিদ আনসারিকে পাকিস্তানের ভুয়া পরিচয়পত্রসহ আটক করার পর কারাদণ্ড দেয়া হয়। এবং গত মঙ্গলবার ভারতীয় এই যুবক অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের জন্য ছয় বছর কারাভোগের পর মুক্তি পেয়ে পাকিস্তান থেকে নিজের দেশে ফিরে এসেছেন।

ভারতে আসার পর ওয়াগা সীমান্তে আনসারিকে গ্রহণ করারজন্য তার পরিবারের সদস্য, সরকারি কর্মকর্তা ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

আনসারির পরিচিতরা বলছেন, আনসারি পাকিস্তানে এক নারীর প্রেমের টানে সে দেশে ছুটে গিয়েছিলেন।আরসেই নারীর সাথে হামিদ আনসারির অনলাইনে পরিচয় হয়েছিল।

তবে পাকিস্তানে যাওয়ার পর দুজনের মধ্যে দেখা হয়েছিল কিনা তা পরিষ্কারভাবে জানা যাচ্ছে না।

আনসারি ২০১২ সাল থেকেই পাকিস্তানের কারাগারে আটক থাকলেও তাকে কারাদণ্ড দেয়া হয় ২০১৫ সালে।তার পরিবার গত এক বছর ধরে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য সবরকম চেষ্টা করছিল।

অবশেষে গত রোববার তার কারাদণ্ডের মেয়াদ শেষ হয়। তারপর অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে আরো কয়েক দিন সময় লেগেছে।

মুম্বাই কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল ফৌজিয়া আনসারি ও ব্যাংকার নিহাল আনসারির ছোট ছেলে ৩০ বছর বয়সের হামিদ আনসারি ২০১২ সালে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রভাষক হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন।

তিনি পরিবারকে জানান, একটি বিমান সংস্থায় সাক্ষাৎকার দেয়ার জন্য তিনি আফগানিস্তানে যাচ্ছেন। কিন্তু আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে পৌঁছানোর কয়েক দিন পরেথেকেই নিখোঁজ হয়ে যান আনসারি। তিনি পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন এবং তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রাখেন।

পরে বাড়িতে থাকা আনসারির কম্পিউটার থেকে তার পরিবার জানতে পারে যে, ইমেইল এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আনসারি পাকিস্তানের কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন। তখন আনসারির বাবা-মা বুঝতে পারেন যে আনসারি পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে অবস্থান করছেন।

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0664 seconds.