• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ১২:০৩:৫২
  • ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ১২:০৩:৫২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ক্লিনাভায় দূর হবে ফরমালিন

ছবি: সংগৃহীত

দেশে ফরমালিনের ব্যবহার এখন ডাল ভাত হয়ে গেছে! শুনে অবাক হলেও সত্য যে,ফরমালিন মূলত ব্যবহার করা হয় টেক্সটাইল, প্লাস্টিক, পেপার, রং, কনস্ট্রাকশন ও মৃতদেহ সংরক্ষণে। কিন্তু কিছু সুবিধাবাদী ব্যবসায়ী বাড়তি মুনাফার লোভে নিত্যপ্রয়োজনীয় সকল দ্রব্যেই মেশাচ্ছেন ফরমালিন। যা শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এসব জেনেও তারা হরহামেশেই কাজটি করে যাচ্ছেন। ফলে বাজার থেকে ফল-শাকসবজি কিনে খেতে চিন্তার কারন হয়ে দাড়াচ্ছে। স্বাস্থ্য সচেতন হলেও নানা কারনে ফল-শাকসবজি থেকে ক্ষতিকর ফরমালিন দূর না করেই খেতে হচ্ছে। ফলে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি।

স্বাস্থ্য সচেতন অনেকে বাজার থেকে ফল-শাকসবজি কিনে কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করে ফরমালিন দূর করে নিচ্ছেন। ফলে ফরমালিনের ক্ষতিকর দিক মুক্ত থাকতে পারছেন। কিন্তু তাদের সংখ্যা নেহাত কম। সচেতন অনেকেই সময়ের অভাব আর ঝামেলার কারনে খাবার থেকে ফরমালিন দূর না করেই খেতে বাধ্য হচ্ছেন। ইচ্ছা থাকলেও সহজ উপায় না থাকায় ফরমালিন মুক্ত হচ্ছে না কষ্টের টাকায় কেনা ফল-শাকসবজি।

ভেজালে ভরা এই সময়ে ফলমুল-শাকসবজিকে ফরমালিন মুক্ত করে খাওয়ার জন্য ‘ক্লিনাভা’ নামে একটি ফরমালিন ক্লিনার বাজারে এনেছে পূর্ণাভা লিমিটেড (রেনাটা লিমিটেড এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান)। শাকসবজি, ফলমুল থেকে কিটনাশক,ফরমালিনসহ ক্ষতিকর উপাদান দূর করে স্বাস্থকর করে নেয়ার সহজ মাধ্যম ‘ক্লিনাভা’। প্রাকৃতিক উপাদান থেকে তৈরি ক্লিনাভা ফলমুল-শাকসবজি থেকে ফরমালিন দূর করতে অধিক কার্যকরি। বাজার থেকে কেনা শাক-সবজি খাওয়ার আগে ১০-১৫ মিনিট ক্লিনাভায় ভিজিয়ে নিলেই দূর হবে কিটনাশক, ফরমালিন ইত্যাদি ক্ষতিকর উপাদান।

ল্যাব টেস্ট বলছে,বাজার থেকে কিনে আনা শাক-সবজি খাওয়ার আগে পরিমানমতো পানিতে ক্লিনাভা ব্যবহার করে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখলে প্রায় ৯৯ শতাংশ কিটনাশক, ফরমালিন ইত্যাদি ক্ষতিকর উপাদান দূর হয় বলে বললেন গবেষক রেজাউল করিম। তিনি বলেন, ক্লিনাভা মেশানো পানিতে শাক-সবজি ভিজিয়ে রেখে নির্দিষ্ট সময় পর উঠিয়ে পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে নিতে হবে। এক্ষেত্রে সময় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রয়োজনের চেয়ে কম সময় ভিজিয়ে রাখলে ফল-সবজি থেকে ক্ষতিকর উপাদানগুলো পুরোপুরি দূর হবে না।

যেসব ফল বিদেশ থেকে দেশের বাজারে আনা হয়ে (আপেল,আঙুর,মাল্টা ইত্যাদি) সেসব ফল-সবজিতে অধিক পরিমানে কার্বাইড, ফরমালিন ব্যবহার করা হয়। দীর্ঘদিন সতেজ রাখার জন্যই মূলত ব্যবহার করা হয় ফরমালিন। একটু সচেতনতার অভাবেই এসব বিষ উপাদান সহজেই ঢুকে পড়তে পারে আমাদের শরীরে। তাই বিদেশী ফল খাওয়ার আগে অবশ্যই পানিতে ক্লিনাভা মিশিয়ে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ফল-সবজি ভিজিয়ে নিয়ে তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে খেতে হবে। বললেন রেজাউল করিম।

বর্তমানে কেবল বিদেশী ফলই নয় দেশের বিভিন্ন প্রান্তরে উৎপাদিত বিভিন্ন ফল,শাক-সবজিতে ব্যবহার করা হচ্ছে ক্ষতিকর ফরমালিন। কৃষকের হাত থেকে বাজারে আসার আগেই ব্যবসায়ীর হাতধরে ব্যবহার হচ্ছে ফরমালিন। সবজিকে সতেজ ও রঙিন রাখার জন্য ফরমালিনসহ নানারকম ক্ষতিকর উপাদানে ভিজিয়ে নেয়া হচ্ছে সেসব। ফলে খাদ্যপন্যের মাধ্যমেই ক্ষতিকর উপাদানগুলো প্রবেশ করছে আমাদের শরীরে। তবে একটু সচেতন হলেই আমরা এসব ক্ষতিকর উপাদান থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে পারি।  

সিজনভিত্তিক কিছু ফল (আমলকি, জলপাই) যেসব ফল উপরের ছাল না ছিলেই খেতে হয় সেসব ফলে ফরমালিনের ব্যবহার খুবই ক্ষতিকর। কারন এসব ফল রাস্তার পাশের দোকান থেকে কিনে খাচ্ছি আমরা। ফলগুলো ধুয়ে খাওয়ার সুযোগ পাচ্ছি না। ফলে প্রভাব পড়ছে শরীরে।

অন্যদিকে রেস্টুরেন্টগুলোতে কাঁচা শাক-সবজি যেমন- লেটুস পাতা,গাজর ইত্যাদি কেটে সালাদ বানিয়ে দেয়া হচ্ছে ভোজনরসিকদের। এক্ষেত্রে সেগুলো ভালো করে ধোয়া হচ্ছে না বললে ভুল হবে না। তাই রেস্টুরেন্টগুলোতে শাক-সবজি ফরমালিন মুক্ত করার জন্যও সচেতন হতে হবে। ক্লিনাভা দিয়ে পরিষ্কার করা হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হয়ে খেতে পারলে ভালো নতুবা ক্ষতির কারন হবে। বললেন রেজাউল করিম।

বাজারে বর্তমানে বেশকিছু ফরমালিন,কার্বাইড ক্লিনার পাওয়া গেলেও অনেকক্ষেত্রে তা পুরোপুরি পরিষ্কার করতে পারে না। তবে ক্লিনাভা এক্ষেত্রে অধিক কার্যকরি বলে জানালেন রেজাউল করিম।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ফরমালিন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0222 seconds.