• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ২৩:০৪:৩৪
  • ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ২৩:০৪:৩৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মাকে ধর্ষণ থেকে বাঁচিয়ে মৃত্যুর কোলে ছেলে

ভায়ানা। ছবি : সংগৃহীত

অবশেষে মৃত্যূর কাছে পরাজিত হলেন ভায়ানা। ভাবছেন, এই ভায়ানা আবার কে! আমরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘বীর পুরুষ’ কবিতাটি কমবেশী সবাই পড়েছি। হ্যাঁ, ১৬ বছরের এই ভায়ানা হলেন রবী ঠাকুরের সেই কবিতার মতই ‘বীর পুরুষ’।

যে তার মায়ের সম্ভ্রম রক্ষা করতে গিয়ে আহত হয়ে কোমায় ছিলেন দীর্ঘ ৯ মাস এবং পরে মৃত্যুবরণ করেন।

ঘটনাটি ২০১৭ সালে রাশিয়ার উত্তর পশ্চিম অঞ্চলের সেভেরোদভিনস্ক নামক এলাকায়। ভায়ানা একদিন স্কুল থেকে ফিরে দেখেন তাদের এক প্রতিবেশী রোমান প্রনিন তার মা নাতালিয়া ক্রাপাভিনাকে ধর্ষণের চেষ্টা করছে। এবং মায়ের পুরো শরীর রক্তে ভিজে গেছে।

এই দৃশ্য দেখে ভায়ানা ৩ কেজি ওজনের একটি ডাম্বশেল দিয়ে সেই ধর্ষককে আঘাত করেন। কিন্তু ধর্ষক রোমান সেই ডাম্বশেলটি ধরে ফেলে। তারপর ৩৭ বছরের লোকটি সেই ডাম্বশেল দিয়ে ভায়ানাকে মাথায় জোরে আঘাত করে পালিয়ে যায়। রোমান ভেবেছিল মা আর ছেলে দু’জনেই মারা গেছে।

তাদের চিৎকার শুনে অন্য প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। আর রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা মা ছেলেকে নিয়ে দ্রুত হাসপাতালে যায়। ভায়ানা কোমায় চলে যায় আর তার মা ২৭ বার অপারেশন করার পর কোনো রকমে সুস্থ হন।

দীর্ঘ ৯ মাস পর কোমা থেকে বেড়িয়ে আসে এবং ভায়ানা ধীরে ধীরে তার নার্সকে চিনতে শুরু করে। এবং অল্প পরিমাণে খাবার খেতে শুরু করে। এরপর স্পেনে নিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তহবিল সংগ্রহের কাজ শুরু হয়। এর মধ্যেই এই বছরের অক্টোবর মাসে ফ্লুতে আত্রান্ত হয়। প্রায় ২-৩ মাস অসুস্থ থাকার পর গত মঙ্গলবার মৃত্যুর কাছে পরাজিত হয় ভায়ানা।

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1625 seconds.