• বাংলা ডেস্ক
  • ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১১:৪৭:৪৭
  • ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৩:২৭:৫৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

আবারও বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে

ছবি: সংগৃহীত

আবারও বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হয়েছে দিনাজপুরের পড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে। খনি থেকে কয়লা উত্তোলনের ৭ দিনের মাথায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ২৭ মিনিটে থেকে শুরু হয় এর উৎপাদন। এর আগে কয়লার অভাবে ৫২ দিন তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিদুৎ উৎপাদন বন্ধ ছিলো।

বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল হাকিম বলেন, গত ৮ সেপ্টেম্বর থেকে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা উৎপাদন শুরু হয়। কয়েক দিনের কয়লা মজুদ হওয়ায় তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের তিনটি ইউনিটের মধ্যে ২৭৫ মেগাওয়াটের একটি ইউনিটে উৎপাদন শুরু করা হয়েছে। কয়লা সরবরাহ বৃদ্ধি পেলে ১২৫ মেগাওয়াট করে ২৫০ মেগাওয়াটের বাকি দুটি ইউনিটও চালু করা হবে বলে জানান এ কর্মকর্তা।

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে উত্তোলন করা কয়লার মধ্যে এক লাখ ৪৪ হাজার টন কয়লা গায়েব হয়ে যায়। এতে ২২ জুলাই কয়লা সঙ্কটের কারণে দেশের একমাত্র কয়লাভিত্তিক দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়ার ৫২৫ মেগাওয়াট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের তিনটি ইউনিটের উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। এতে বিদ্যুৎ সঙ্কটে পড়ে দিনাজপুরসহ রংপুর বিভাগের আট জেলা।

এ কারণে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী হাবিব উদ্দিন আহম্মদ ও কোম্পানির সচিব আবুল কাশেম প্রধানিয়াকে প্রত্যাহার করে নেয় খনিটির নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান পেট্রোবাংলা। অন্যদিকে খনির মহাব্যবস্থাপক এটিএম নুরজ্জামান চৌধুরী ও উপ মহাব্যবস্থাপক খালেদুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

যদিও খনির কর্মকর্তাদের দাবি ‘এক লাখ ৪৪ হাজার টন কয়লা গায়েব নয়, সিস্টেম লস।’

বাংলা/এমআই

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1626 seconds.