• ক্রীড়া ডেস্ক
  • ২৭ জুলাই ২০১৮ ২১:৫৫:০৭
  • ২৭ জুলাই ২০১৮ ২১:৫৫:০৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কারাদণ্ড থেকে মুক্তি পেলেন রোনালদো

ফাইল ছবি

বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে কর ফাঁকির মামলায় বিশ্বসেরা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছিল স্প্যানিশ আদালত। পাশাপাশি তাকে ১৮.৮ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা করা হয়।

দায় স্বীকার করে ১৯ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা দিয়েছেন রোনালদো। দুই বছরের স্থগিত জেলের শাস্তিও মেনে নিয়েছেন রোনালদো। এ জরিমানা দিয়ে কারাবাস থেকে `মুক্ত` পেলেন সিআর সেভেন।

স্পেনের আইন অনুযায়ী প্রথমবার কোনো অপরাধে কারো দুই বছরের কারাদনণ্ড হলে সেটা কার্যকর করা হয় না। হাজতেও থাকতে হয় না। ৪টি ভিন্ন অপরাধে দায় স্বীকার করে নিয়েছেন রোনালদো।

ইএফই জানিয়েছেন, ২০১১ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ছবি স্বত্ব থেকে প্রাপ্ত অর্থের তথ্য গোপন করেন রোনালদো। ২০১৭ সালের জুনে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে স্প্যানিশ কর কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি তথ্য গোপন করে মোট ১৪.৮ মিলিয়ন ইউরো কর দেননি রোনালদো। তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় রোনালদোকে দোষী সাব্যস্ত করে কর বিভাগ। এরপরই আলাদত রোনালদোকে কড়া শাস্তি দেয়।

কারাবাসে থাকতে না হলেও রোনালদোর জন্য কর ফাঁকির বিষয়টি ছিল ‘মর্যাদাহানিকর’। গুঞ্জন ছড়িয়েছে স্পেনের উচ্চ কর আইনের কারণে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়েছেন রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদে নয় মৌসুম কাটিয়ে রোনালদো পাড়ি দিয়েছেন জুভেন্টাসে। লা লিগার প্রেডিডেন্ট জাভিয়ার তেবাস মনে করেন, স্পেনের উচ্চ কর আইন রোনালদোকে রিয়াল ছাড়তে বাধ্য করেছে!

পাঁচবারের ব্যালন ডি’ অর জয়ী রোনালদো গত বছর চেয়েছিলেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ফিরে যেতে। অতিরিক্ত করের কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছিলেন রোনালদো। শেষ পর্যন্ত ওই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন। কোর্টে কর ফাঁকির এক মামলায় রোনালদো বলেছিলেন, ‘আমি সব সময় কর পরিশোধ করি। আমার যতটুকু করার প্রয়োজন ততটুকুই করি এবং ভবিষ্যতেও করে যাব।’

বাড়তি কর যে খেলোয়াড়দের মাথা ব্যথার কারণ তা নতুন নয়। রোনালদো, মেসি, নেইমার প্রত্যেকের ওপরই রয়েছে করের বোঝা। নেইমার পিএসজিতে গিয়ে সেই বোঝা কমিয়েছেন। এবার রোনালদোও করলেন।

বাংলা/আরএইচ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0184 seconds.