• ক্রীড়া ডেস্ক
  • ১১ জুলাই ২০১৮ ১৮:৩৮:১১
  • ১২ জুলাই ২০১৮ ১০:১০:৪০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

রোনালদো বন্দনায় মেসি-পেলেরা

ফাইল ছবি

ফুটবল বিশ্বের উজ্জল নক্ষত্র ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। বিশ্বকাপে নিজের দেশের খেলা শেষ না হতেই স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে টানা ৯ বছরের খেলার জীবনের ইতি টানলেন তিনি।

স্প্যানিশ ফুটবলের মাথা উঁচু করে থাকা ফুটবলারের নাম রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে রোনালদো ম্যাচ খেলেছেন ৪৩৮টি। গোল করেছেন ৪৫১টি। ক্লাবের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত তিনিই সর্বোচ্চ গোলদাতা।

৯ বছরে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে মোট ১৬টি শিরোপা জিতেছেন। অর্জনের মধ্যে রয়েছে চারটি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ, দুটি লিগ কাপ, দুটি কোপা দেল রে, সুপারকোপা দুটি, উয়েফা সুপার কাপ দুটি, তিনটি ক্লাব বিশ্বকাপ ও চারবার ব্যালন ডি’অর।

রিয়ালের জন্য কম করেননি সিআরসেভেন। এবার স্পেন ছেড়ে রোনালদোর নতুন ঠিকানা এখন ইতালির জুভেন্টাস। রিয়ালে তার ক্যারিয়ারের কথা অজানা নেই লিওনেল মেসি-পেলেদের। তাই তো রোনালদোকে অভিনন্দন বার্তা জানাতে ভুলছেন না এসব খ্যাতিমান তারকারা।

স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাবের পুরো অর্জন নিয়ে রোনালদোকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ, রিয়ালের কিংবদন্তি আলফ্রেদো ডি স্টেফানো, লিওনেল মেসি, জিনেদিন জিদান, দিয়াগো ম্যারাডোনা, হোসে মরিনহো, পেলের মতো তারকারা।

ক্লাবের প্রেসিডেন্ট পেরেজ রোনালদোকে নিয়ে বলেছেন, ‘আলফ্রেদো ডি স্টেফানোর সঙ্গে রোনালদো ক্লাবের ইতিহাসের সেরা।’

পেলের ভাষায়, ‘তার ফুটবলের সামর্থ্য নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আমার মনে হয় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো পৃথিবীর সেরা ফুটবলার সেটা নিয়েও কোনো সন্দেহ নেই।’

রিয়াল মাদ্রিদে রোনালদোর সরাসরি কোচ হোসে মরিনহো বলেছেন, ‘আমার ছেলেমেয়েরা পেলের খেলা দেখেনি। কিন্তু তারা জানে পেলে কে। ৪০ বছরের মধ্যে ছেলেমেয়েরা জানবে, রোনালদো কে।’

আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি ম্যারাডোনার ভাষায়, ‘রোনালদো ফুটবল ঐতিহ্যের অংশ। যারা একাই দলকে ফাইনালে নিয়ে যেতে পারে, রোনালদো তাদের মধ্যে একজন।’

রিয়াল মাদ্রিদের সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা। সেই স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাবের তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি বলেছেন, ‘রোনালদো একজন গ্রেট ফুটবলার। তার অনেক গুণ আছে। প্রতি বছরই তিনি নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন যেটা তাকে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলারে পরিণত করেছে।’

২০০৯ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ৯০ মিলিয়ন ইউরোতে রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি জমান রোনালদো। ৯ বছর পর ২০১৮ সালে সেই রিয়াল ছেড়ে ১০৫ মিলিয়ন ইউরোর ট্রান্সফার ফি’তে ঘাটি গড়ছেন ইতালির জুভেন্টাসে।

বাংলা/আরএইচ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.6736 seconds.