• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৯ জুলাই ২০১৮ ১৭:৪৬:০৭
  • ০৯ জুলাই ২০১৮ ১৭:৪৬:০৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সার দিয়ে নয়, মন্ত্র পড়ে চাষবাস!

ছবি: সংগৃহীত

হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ‘বৈদিক চাষবাস’ করতে পারবে ভারতের গোয়া এলাকার কৃষকেরা। এই পদ্ধতি কৃষকদের ফলন বাড়াতে সার ব্যবহার নয়, বরং মন্ত্র পড়তে উৎসাহ দিচ্ছেন সে রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী।

সংবাদমাধ্যম দ্যা টেলিগ্রাফের এক প্রতিবেদনে মাধ্যমে জানা গেছে, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ‘বৈদিক চাষবাস’ করতে উৎসাহ দিচ্ছেন কৃষি কর্মকর্তারা। সে রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী বিজয় সারদেসাই দাবি করেন, হিন্দু ধর্মের প্রাচীন মন্ত্র পড়ে চাষাবাদ করলে উৎপাদন বেশি হবে এবং রাসায়নিক সারের তুলনায় এই পদ্ধতিই ভালো।

মন্ত্রীর দাবি, বীজ বপনের মৌসুমে ২০ মিনিট ধরে এক সংস্কৃত মন্ত্র পড়তে হবে দৈনিক। এতে ফলন ভালো হবে। তার হোয়াটসঅ্যাপ পোস্টে দেখা যায়, মধ্য প্রদেশের কৃষকরা মাঠে বসে আছেন এবং মন্ত্র পড়ছেন।  

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের তথ্য অনুযায়ী, এই কাজের তত্ত্বাবধানে ছিলেন এক প্রাক্তন ইঞ্জিনিয়ার, আভাদূত শিবানন্দ। তিনি মন্ত্র পড়ে চাষবাসের এই ধারণার মূল উদ্যোক্তা।  

কৃষিমন্ত্রী দাবি করেন, ধ্যানের মাধ্যমে কিছু ঐশ্বরিক শক্তিকে কাজে লাগানো যায়, এতে ফলন বাড়ানো যায় এবং সারের ব্যবহার কমানো যায়। তিনি এটাও দাবি করেন, এই পদ্ধতি ব্যবহার করে অর্কিডের চাষ করেন তার স্ত্রী। তিনি প্রথমে এই পদ্ধতিকে হেসেই উড়িয়ে দিতেন কিন্তু এর পেছনে গবেষণা আছে বলে তিনি জানতে পারেন। অবশ্য এই গবেষণার ব্যাপারে তিনি কোনো ব্যাখ্যা দেননি।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে কৃষকদের এই ‘বৈদিক চাষবাস’ পদ্ধতির ওপর প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন গোয়ার কৃষি কর্মকর্তারা।

বাংলা/এবি

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1729 seconds.