• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৩ জুন ২০১৮ ১৩:১৫:৫৪
  • ১৩ জুন ২০১৮ ১৩:১৫:৫৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
advertisement

যেসব দেশে পুরুষের চেয়ে নারীর ব্যাংক হিসাব বেশি

ছবি : সংগৃহীত

এখনো পর্যন্ত সারা বিশ্বে পুরুষরাই কর্মক্ষেত্রের সাথে বেশি যুক্ত। সে অনুযায়ী নারীর চেয়ে পুরুষের ব্যাংক হিসাবের সংখ্যাই বেশি হওয়ার কথা। তবে বিশ্বের এমন ছয়টি দেশ আছে যেখানে পুরুষের চেয়ে নারীর ব্যাংক হিসাব বেশি। দেশগুলো হচ্ছে- আর্জেন্টিনা, জর্জিয়া, ইন্দোনেশিয়া, লাওস, মঙ্গোলিয়া ও ফিলিপাইন।

১৪০ দেশের তথ্যের ওপর ভিত্তি করে এ হিসেব দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

বিশ্বব্যাংকের সর্বশেষ রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে, প্রায় অর্ধ কোটিরও বেশি প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির ব্যাংক হিসাব আছে। অর্থাৎ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিদের মধ্যে ৬৯ শতাংশেরই এ ধরনের ব্যাংক হিসাব আছে, যা ২০১১ সালে ছিল ৫১ শতাংশ।

এ প্রতিবেদনের তথ্যমতে, এক্ষেত্রেও নারীরা পিছিয়েই আছেন। কারণ প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে যাদের ব্যাংক হিসাব আছে, তাদের মধ্যে পুরুষ ৭২ শতাংশ আর নারী ৬৫ শতাংশ।

তা হলে ইউরোপ, দক্ষিণ আমেরিকা ও এশিয়ার ছয়টি দেশে উল্টো চিত্র এলো কীভাবে?

বিশ্বব্যাংকের অর্থনীতিবিদ লিওরা ক্ল্যাপার এক্ষেত্রে কিছু সূত্র দিচ্ছেন। তার মতে, ফিলিপাইনে যেমন অনেক বেশি সংখ্যায় নারীরা দেশের বাইরে কাজে যাচ্ছেন। সে হিসাবে তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টও আছে।

পরিবারকে সহায়তা করতে এসব নারী প্রচুর অর্থ পাঠান রেমিটেন্স হিসেবে।

আবার ছয়টি দেশেই (লাওস ছাড়া) সরকারি নানা কর্মসূচিতে নারীরা নগদ অর্থ সহায়তা পেয়ে থাকেন, যে অর্থ তাদের ব্যাংক হিসেবে জমা হয়।

মঙ্গোলিয়াতে যেমন ৪৩ শতাংশ নারী এমন অর্থ সহায়তা পেয়ে থাকেন, যেখানে দেশটির ২৪ শতাংশ পুরুষ সেই একই সহায়তা পায়।

ইন্দোনেশিয়ায় বছরে অন্তত একবার অর্থ জমা কিংবা প্রত্যাহার সচল থাকা ব্যাংক হিসাবগুলোতে নারী ও পুরুষের উল্লেখযোগ্য পার্থক্য নেই।

যদিও অন্যভাবে দেখলে একটি কারণে নারীদেরই বেশি ব্যাংক হিসাব হবে। তা হল- কিছু সরকারি কর্মসূচি থেকে তারা অর্থ পেয়ে থাকে।

কিন্তু এসব কর্মসূচি থেকে টাকা উত্তোলনের পর অনেকেই আবার এ ধরনের ব্যাংক হিসাব বন্ধ করে দেন।

সূত্র : বিবিসি

advertisement

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ব্যাংক হিসাব নারী পুরুষ

আপনার মন্তব্য

advertisement
Page rendered in: 0.1697 seconds.