• বিনোদন ডেস্ক
  • ২৪ মে ২০১৮ ২২:০৯
  • ২৪ মে ২০১৮ ২২:০৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

অভিযোগ নেই, যা হয়েছে তা ভাগ্যের লিখন : বাপ্পা

বাপ্পা মজুমদার ও চাঁদনী। ছবি : সংগৃহীত

সংগীতশিল্পী, সুরকার ও সংগীত পরিচালক বাপ্পা মজুমদার তার সাবেক স্ত্রী চাঁদনীর প্রতি কোনো অভিযোগ নেই বলে জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাপ্পা তার ফেসবুকে পেজে এই স্ট্যাটাস দেন।

তিনি ফেসবুকে লিখেন, ‘অনেক বছর একসঙ্গে থেকে, থাকার চেষ্টা করে অবশেষে হার মানতে হয়েছে আমার আর চাঁদনীর। আমরা পারিনি আমাদের সংসার নিয়ে বাকি জীবন কাটাতে। কোনো অভিযোগ কিংবা অসম্মান চাঁদনীর প্রতি নেই। এমনকি চাঁদনীরও আমার প্রতি কোনো অসম্মানবোধ আছে বলে মনে করি না। যা হয়েছে তা ভাগ্যের লিখন মনে করি।’

ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে বাপ্পা লেখেন, ‘মানুষের জীবনে এমন অনেক কিছু হয়, যা হওয়ার কথা থাকে না। ব্যক্তিগত বিষয়গুলো জীবনের অংশ মনে করে জীবনের সঙ্গেই রেখে দেয়া ভালো। আমাকে আমার ভক্তরা আমার কাজ দিয়ে চেনেন, আমি আমার কাজ নিয়েই থাকতে চাই, বাঁচতে চাই সবার মাঝে। কী হবে ব্যক্তিজীবনের গল্প জনে জনে বলে? অন্যের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমি কখনোই আগ্রহী না যেমন ঠিক, তেমন আমার ব্যক্তিগত জীবনও কারও সঙ্গে খুব একটা শেয়ার করা আমার বৈশিষ্ট্য না। তবে সময়ের কারণে আজ আপনাদের জানাতে হচ্ছে।’

বাপ্পা আরো লিখেছেন, ‘জীবন তার নিজের গতিতে চলে। সময় কারও নিজের ইচ্ছায় চলে না। সময় খুব খেয়ালি। জীবন সময় কখন কাকে কোথায় নিয়ে ফেলে বোঝা মুশকিল।’

বাপ্পা জানান, গত বছর ৯ অক্টোবর চাঁদনীর সঙ্গে তার বিবাহবিচ্ছেদের আইনি প্রক্রিয়া শুরু হয়, আর শেষ হয় এ বছর ৯ জানুয়ারি। তারও আগে তারা দুজন এক বছরের বেশি সময় আলাদা ছিলেন।

বাগদত্তা তানিয়াকে নিয়ে ফেসবুকে বাপ্পা মজুমদার বলেন, ‘তানিয়া আমার বন্ধু। দারুণ একজন বন্ধু। তানিয়ার সঙ্গে আমার যোগাযোগ এবং ভালো লাগাও। এর সূত্র ধরেই সম্প্রতি আমি আমার ভাবনা তানিয়াকে জানাই, তানিয়াও তার ভাবনা আমাকে জানায়। আমরা আমাদের পরিবারের সান্নিধ্য ছাড়া জীবনে চলতে চাই না। তাই দুই পরিবারের সিদ্ধান্তে একান্তই পারিবারিকভাবে আমাদের বাগদান হয়। আগেই বলেছি, ব্যক্তিগত বিষয়গুলো আমি বরাবরই নিজের ভেতর রাখতে চাই। যেখানে পরিবার যুক্ত, সেখানে আর অপরিষ্কার কোনো চিত্র নেই। বাকিটা পরিবেশ আর পরিস্থিতি। আপনারা প্রার্থনা করবেন। আমার জীবনের সব ভালোমন্দ অধ্যায়ে আপনারা সঙ্গে ছিলেন, বাকি জীবনেও থাকবেন—সেই কামনা করি।’

বাপ্পা মজুমদার এবং অভিনয়শিল্পী ও উপস্থাপিকা তানিয়া হোসাইনের আংটিবদলের খবর এরই মধ্যে সবাই জানেন। গত ১৬ মে রাতে ঘরোয়াভাবে তাদের আংটিবদল অনুষ্ঠান হয়। আংটিবদলের একটি ছবি ২০ মে রাতে তানিয়া হোসাইন তার ফেসবুক পেজে পোস্ট করেন। রাজধানীর পশ্চিম পান্থপথে তানিয়ার মায়ের বাসায় আংটিবদলের অনুষ্ঠান হয়।

আংটিবদলের অনুষ্ঠানের পর বাপ্পা তার সাবেক স্ত্রী চাঁদনী ও বাগ্দত্তা তানিয়াকে নিয়ে মুখ খুললেন। ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসের মধ্য দিয়ে বাপ্পা তার অবস্থান পরিষ্কার করেন।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ৩০ মার্চ চিত্র পরিচালক ও উপস্থাপক দেবাশীষ বিশ্বাস আর তানিয়া হোসাইন ভালোবেসে বিয়ে করেন। বিয়ের এক বছরের মাথায় তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়।

অপরদিকে, বাপ্পা মজুমদার এবং অভিনয়শিল্পী ও নৃত্যশিল্পী চাঁদনী ভালোবেসে বিয়ে করেন ২০০৮ সালের ২১ মার্চ। দীর্ঘ নয় বছর সংসারজীবনের পর ছাড়াছাড়ি হয় তাদের।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1625 seconds.