• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৫ মে ২০১৮ ২০:৩২:৫১
  • ১৫ মে ২০১৮ ২০:৩২:৫১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেই ঘর ছাড়েন তারা

ছবি: সংগৃহীত

হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ চারিয়া লোকনাথ ধর্মের টানে ঘর ছেড়েছেন ভাই-বোন। গত ১৫ মার্চ আচমকা বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যান হাটহাজারীর বাসিন্দা শ্রাবন্তি রাণী নাথ (২২) ও তার আপন ছোট ভাই শুভ কুমার নাথ (২০)। সন্তানদের খোঁজে ১৬ মার্চ স্থানীয় থানায় সাধারণ ডায়রি করেন তাদের বাবা স্বপন কুমার নাথ।

অনেক দিন সন্তানদের খোঁজ না পেয়ে পরে আপন দুই ভাতিজা রাজিব চন্দ্র ও সজিব চন্দ্রের বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা ঠুকে দেন হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ চারিয়া লোকনাথ পল্লীর বাসিন্দা স্বপন।

অবশেষে সোমবার সকালে দুই ভাই বোনকে বাড়ির অদূরে চট্টগ্রামের হাটহাজারী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাদেরকে আদালতে হাজির করা হলে বেরিয়ে আসে ভিন্ন তথ্য।

আদালতকে দেয়া জবানবন্দিতে শ্রাবন্তি রাণী নাথ আর শুভ কুমার নাথ জানান, সনাতন ধর্মানুসারী বাবা মায়ের সংসারে জন্ম নেয়া তারা কয়েক বছর আগে থেকেই ইসলাম ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হতে থাকেন। গত ১৫ মার্চ দুপুরে নিজেদের মধ্যে পরামর্শ করে ঘর থেকে বেরিয়ে যান তারা।

গত ৯ এপ্রিল মাসে তারা এক মওলানার কাছ হতে কলেমা পড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। একদিন পর আদালতে হাজির হয়ে এফিডেভিট করে ধর্মান্তরিত হন তারা। এরপর শ্রাবন্তি রাণী নাথ নিজের নাম রাখেন জান্নাতুল ফেরদৌস মিম। ছোট ভাই শুভ কুমার নাথ নিজের নাম রাখেন মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

আদালতে তারা আরো বলেন, ধর্মান্তরিত হওয়ার পর এলাকায় গিয়ে পরিবার ও প্রতিবেশীদের রোষাণলে পড়ার ভয়ে বাড়ির অদূরে হাটহাজারীর এগার মাইল এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিলেন তারা।

এদিকে স্বপন কুমার নাথের দুই ভাতিজা রাজিব কুমার নাথ ও সজীব কুমার নাথও সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম পালন করছেন। এ ব্যাপারে স্বপন কুমার নাথের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এই বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।

হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, আদালতের নির্দেশে অপহরণ মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তাদেরকে উদ্ধার করে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

বাংলা/আরএইচ

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1739 seconds.