• বিদেশ ডেস্ক
  • ১১ মে ২০১৮ ১৬:৩৯
  • ১১ মে ২০১৮ ১৬:৩৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সেচ্ছায় মৃত্যুবরণ করলেন এই বিজ্ঞানী

বিজ্ঞানী ডেভিড গুডঅল। ছবি : সংগৃহীত

দীর্ঘ দিন বেঁচে থাকতে কত কিছুই না করে মানুষ। অসফল মানুদের এমন চেষ্টা ক্ষীন হলেও পৃথিবীতে বেঁচে থাকতে সফল মানুষদের চেষ্টাটা বেশি।

অথচ এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যেতে সেচ্ছায় মৃত্যু বরণ করেছেন অস্ট্রেলীয়ার সফল এক ব্যক্তি। সুইজারল্যান্ডে গিয়ে স্বেচ্ছামৃত্যু বরণ করলেন অস্ট্রেলীয় উদ্ভিদ বিজ্ঞানী ডেভিড গুডঅল। লিথাল ইঞ্জেকশন প্রয়োগের মাধ্যমে তার এই মৃত্যু কার্যকর করা হয়।

মৃত্যুর আগের ঘণ্টাগুলো আনন্দমুখর পরিবেশে কাটিয়েছেন বিশ্বজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করা এই বৃদ্ধ।

কীভাবে কেটেছে গুডঅলের জীবনের শেষ মুহূর্তগুলো?

তিনি মারা যাওয়ার সময় বেটোফেনের ‘ওডে টু জয়’ সংগীতটি শুনতে পছন্দ করবেন বলে জানিয়েছিলেন। এ সময় গুনগুন করে গেয়ে ওঠেন। সুস্থ শরীরে মৃত্যুবরণের গুডঅল শেষ সময়ে কাছে পেয়েছেন তার নাতিদের। নাতিদের বান্ধবীরাও এসেছেন গুডঅলের শেষযাত্রার সাক্ষী হতে।

এর আগে, বুধবার একটি এয়ারলাইন্সের বিজনেস ক্লাস ফ্লাইটে করে সুইজারল্যান্ডের বেসেলে পৌঁছান ১০৪ বছর বয়সী ডেভিড গুডঅল। এক সংবাদ সম্মেলনে এই অকুতোভয় বিজ্ঞানী জানান, আমি যেতে প্রস্তুত। সম্ভবত কোনো প্রাণঘাতী ইনজেকশন পুশ করে আমার মৃত্যু নিশ্চিত করা হবে। বিষয়টি আমি ডাক্তারদের ওপরই ছেড়ে দিয়েছি।

দিনভর নাতি-নাতনিদের সাথে বেসেল ইউনিভার্সিটির বোটানিক্যাল গার্ডেনে ঘুরে বেড়ান গুডঅল। দাদার মৃত্যুশয্যার পাশে থাকতে যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট থেকে ছুটে আসা নাতি ডানকান গণমাধ্যমকে জানান, তিনি খুবই সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমি জানি না সে সময় আমার কেমন অনভূতি হবে। তবে, যুক্তিসঙ্গত কারণে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমি এটিকে সম্মান জানাই।

স্বেচ্ছামৃত্যুর নিশ্চিত করতে সুইজারল্যান্ডের ক্লিনিকটিকে ৮ হাজার ডলার বিল নিচ্ছে। অবশ্য, গুডঅলের স্বেচ্ছামৃত্যুর জন্য ইতিমধ্যে ১০ হাজার ডলারের ফান্ড গঠন করেছে স্বেচ্ছামৃত্যুর সমর্থনে কাজ করা সংস্থাগুলো।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1719 seconds.