• ফিচার ডেস্ক
  • ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ২০:২৮:৩১
  • ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ২০:২৮:৩১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
advertisement

সিগারেটের সঙ্গে গরম চা খেলে যা হয়

প্রতীকী ছবি

বন্ধুদের আড্ডায় কিংবা কাজের ফাঁকে গরম চায়ের সাথে একটা জ্বলন্ত সিগারেট, আর কি লাগে? কিন্তু আপনি এর ক্ষতিকারক দিকগুলো জানেন তো?

এক গবেষণায় দেখা গেছে বেশি গরম চা পান করার অভ্যাসে ইসোফেজিয়াল ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়তে পারে৷ ৬ ফেব্রুয়ারি অ্যানালস অব ইন্টারনাল মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমনই আশঙ্কার কথা বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, যে ব্যক্তিরা নিয়মিত ধূমপান করেন এবং মদ্যপান করেন, তাদের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত গরম চা পান করাটা খাদ্যনালীতে টিউমারের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়।

যারা দিনে অন্তত এক গ্লাস অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় পান করেন এবং পাশাপাশি দিনে অতিরিক্ত গরম চা পান করেন তাদের খাদ্যনালীতে ক্যান্সারের ঝুঁকি বেশি। এছাড়া ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে দেখা যায়, প্রতিদিন অতিরিক্ত গরম চা পান করলে তাদের অনেকাংশেই এই ক্যান্সারটি হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে।

গবেষণার লেখক পিকিং ইউনিভার্সিটি হেলথ সায়েন্স সেন্টারের ড. জুন এলভি জানান, তামাক ও অ্যালকোহল দুটো থেকে দূরে থাকাই হচ্ছে এই ক্যান্সার প্রতিরোধের ভালো উপায়।

তবে তিনি আরো বলেন, ‘ধূমপান ও মদ্যপানের অভ্যাস না থাকলে শুধু চা পান করা নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।’

৩০ বছর থেকে ৭৯ বছর বয়সী সাড়ে চার লক্ষ ব্যক্তির ধুমপান, মদ্যপান এবং চা পান অভ্যাসের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল এক গবেষণার জন্য। তাদের কারোই ক্যান্সার ছিলো না, যখন গবেষণাটি শুরু হয়েছিল। এই সাড়ে চার লক্ষ মানুষের তথ্য নেওয়া হয় পরবর্তী নয় বছর। আর ১৭৩১ জনের ইসোফ্যাজিয়াল ক্যান্সার দেখা দেয় এই সময়ের মধ্যে। 

যারা অতিরিক্ত উত্তপ্ত চা পান করেন, মদ্যপান করেন এবং ধূমপান করেন তাদের ইসোফ্যাজিয়াল ক্যান্সারের ঝুঁকি থাকে পাঁচগুণ বেশি, এমনটাই ফলাফলে দেখা যায়।

তবে কিছু তথ্য পাওয়া যায়নি গবেষণাটিতে, যেমন ইসোফ্যাজিয়াল টিউমারের ঝুঁকি বেশি হবে ঠিক কত তাপমাত্রায় চা পান করলে। এছাড়াও গবেষণায় পাওয়া যায়নি, এই নয় বছরে তাদের অভ্যাস পরিবর্তনে এই ঝুঁকি কম বা বেশি হয় কিনা।

advertisement

সংশ্লিষ্ট বিষয়

সিগারেট চা

আপনার মন্তব্য

advertisement
Page rendered in: 0.1730 seconds.