• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৫ জানুয়ারি ২০১৮ ২২:১৪:২০
  • ০৫ জানুয়ারি ২০১৮ ২২:১৪:২০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কেন আকাশ দেখা?

ফাইল ছবি

১.
সম্ভবত ইউক্লিত তাঁর কপিকলটি দেখিয়ে বলেছিলেন, আমাকে একটু দাঁড়াবার জায়গা দাও পৃথিবীটা নাড়িয়ে দেব। শুধু কি তিনিই? গ্যালিলিও খ্রিষ্টীয় মোল্লাদের তাঁর টেলিস্কোপটি দেখিয়ে বলেছিলেন, আমার বিচার করার আগে এই নলটি দিয়ে একবার দেখো। কারণ তিনি জানতেন, একবার শুধু একবার দেখলেই মোল্লাতন্ত্রের জারিজুড়ি ফাঁস হয়ে যাবে।

আমরা বাস করছি বিবিএ, এমবিএ এর যুগে। স্কুল-কলেজগুলোতে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী কমে গেছে আশঙ্কাজনকভাবে। আগে হাই স্কুল মানেই ছিল বিশাল মাঠ, যন্ত্র ভর্তি বিজ্ঞানাগার আর বই সমারোহ নিয়ে পাঠাগার। আর এখন?

কয়েকদিন আগে ছিল বিজ্ঞানী সত্যেন বোসের জন্মদিন। যাঁর আবিষ্কারের ওপর গবেষণা করে বিদেশীরা নতুন আবিষ্কারে দুই দিন পর পর আমাদের চমকে দিচ্ছে, সেই সত্যেন বোসের জন্মদিন কখন আসে কখন চলে যায় -আমরা টেরই পাই না। আমাদের পূর্বপুরুষগণ একটি গণতান্ত্রিক বাঙলাদেশের জন্য জানবাজি রেখেছিলেন, আর আমরা ধর্ম রাষ্ট্র বানাবার তালে থাকি। কেন?

আমাদের অর্ধশিক্ষিত মায়েরাও বই পড়তেন, সেই পাঠাগারগুলো গ্রাম থেকে উধাও হয়ে গেল! ইউনিয়নে ইউনিয়নে পাঠাগার-বিজ্ঞানাগার নির্মাণের বাজেট হয় না, অথচ আমরা নাকি মধ্য আয়ের দেশে পৌঁছে গেছি। ইযরাঈল, সিঙ্গাপুর ও জাপানের মাথাপিছু আবাদী জমি আমাদের চেয়ে কম। প্রাকৃতিক সম্পদও ওদের নাই বললেই চলে আমাদের তুলনায়। এত নদনদী প্রমাণ করে বাঙলাদেশ পৃথিবীর স্বর্গ হতে পারতো। তবুও ওই দেশগুলো এত এগিয়ে গেল কেন? কারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি। আর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতেই বা এগিয়ে গেল কেন? কারণ, রাজনীতি।

২.
গ্রীক গণিতবিদ ইরাস্থেনিসের মত আমরাও জানি, একটি ছোট্ট কাঠি দিয়ে পৃথিবী মেপে দেয়া যায়। আমরাও একটা টেলিস্কোপ দিয়ে রঙপুর ও কুড়িগ্রামের  কিশোরদের দেখার চোখকে বাড়িয়ে দিতে পারি। টেলিস্কোপ দিয়ে আকাশ দেখতে গিয়ে তারা জানুক- আকাশের ওপারে আকাশ। তারপর তার প্রেমে পড়ুক, সেই প্রেম বিজ্ঞান পর্যন্ত পৌঁছুবেই!

একটা মাঝারি মানের টেলিস্কোপের দাম সর্বোচ্চ দেড় লাখ টাকা। ইতোমধ্যে ২/৩ জন বড় ভাই, বন্ধু সাড়া দিয়েছেন। তাতে হাজার পঞ্চাশেক টাকা হয়। বাকিটুকুর জন্য আপনাদের সহযোগিতা চাই। আমরা সাহায্য দাতাদের নাম আপডেট দিব।

চলুন আকাশ দেখি, আকাশের মত বড় হোক আমাদের দেশটা।

যোগাযোগ:
নাহিদ হাসান নলেজ
সমন্বয়ক
আলোর মিছিল
চিলমারী, কুড়িগ্রাম।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

আকাশ টেলিস্কোপ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0291 seconds.