• বিনোদন প্রতিবেদক
  • ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৯:১৯:৪২
  • ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৯:১৯:৪২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

অপুর এক মুখে দুই কথা

ফাইল ছবি

অপু বিশ্বাসকে ডিভোর্সের নোটিশ পাঠিয়েছেন শাকিব খান। এরপর থেকেই গণমাধ্যমে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছে বিষয়টি। ডিভোর্স লেটারের প্রতিক্রিয়া জানতে গণমাধ্যমকর্মীরা অপুর সাথে বারবার যোগাযোগ করেও ব্যর্থ হয়েছেন। অবশেষে আজ বেশ কিছু গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে মুখ খুলেছেন এ নায়িকা। ডিভোর্স সম্পর্কে জানিয়েছেন তার মন্তব্য। অপু বলেন, আইনি প্রক্রিয়াতেই বিষয়টি দেখবেন তিনি।

এ সময় অপু বিশ্বাস দাবী করেছেন শাকিব খান তাকে জোর করে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করেছেন। তাই এখন তিনি শাকিবের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন না। এই বিষয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীসহ মানবাবাধিকার সংস্থাদের  সহযোগিতাও চেয়েছেন।

শাকিব অপুকে জোর করে ধর্মান্তরিত করেছেন এমন মন্তব্যের পর শুরু হয়েছেন নতুন বিতর্ক। কারণ এর আগে সন্তানসহ লাইভে এসে অপু বিশ্বাস জানিয়েছিলেন তিনি নিজ ইচ্ছাতে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। এমন মন্তব্য এখনও অনলাইন ও প্রিন্ট গণমাধ্যমগুলোতে রয়েছে। এ ছাড়াও রাজনীতি ছবির প্রচারণায় ফেসবুক লাইভে এসে তিনি বলেছিলেন আমি এখন মুসলিম। নিয়মিতই নামাজ পড়ি, রোজা রাখি। তবে কেউ আমাকে রোজা রাখা ও নামাজ শেখায়নি। আমি নিজেই বই পড়ে পড়ে শিখেছি।'

পাশাপাশি গত ২৮ নভেম্বর সন্তান জয়কে নিয়ে শাকিবের বাসায় গিয়েছিলেন অপু। জয়কে শাকিব ও তার বাবা মার কাছে রেখে দুদিনের জন্য গ্রামের বাড়ি বগুড়া গিয়েছিলেন। সে সময় শাকিবের মা, বাবাকে অপু জানিয়েছেন আমি নামাজ, রোজা, হজ আদায় করব আর শাকিবের সঙ্গে সুখে সংসার করব। অথচ এখন অপু বিশ্বাস বলছেন তাকে শাকিব খান জোর করে ধর্মান্তরিত করেছেন।  এক মুখে এমন দুই রকম মন্তব্য শুনে বিভ্রান্তিতে পড়েছেন জুটির ভক্তরা।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

অপু বিশ্বাস ডিভোর্স

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1601 seconds.