• বিনোদন ডেস্ক
  • ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৩:৫৯:৪৪
  • ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৯:২০:২৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

শাকিবের চাপে তিনবার গর্ভপাত করতে হয়েছে : অপু

ছবি : সংগৃহীত


ঢালিউডের এ সময়কার সবচেয়ে আলোচিত অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস বলেছেন, ছেলে আব্রাম খান জয় জন্ম নেওয়ার আগে শাকিব খানের চাপে তিনবার গর্ভপাত (অ্যাবরশন) করাতে হয়েছে তাঁকে। সন্তান জন্মের পরই শাকিবের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। 

আজ বুধবার সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন অপু বিশ্বাস।

অপু বিশ্বাস বলেন, ‘জয় যখন গর্ভে আসে, তখন অ্যাবরশন করানোর জন্য আমাকে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে পাঠায় শাকিব। সেখানকার চিকিৎসক জানান, যেহেতু আগে তিনবার অ্যাবরশন হয়েছে, আর নতুন করে কনসেপ্টের সময় চার মাস হয়েছে, সেহেতু অ্যাবরশন করানো ঝুঁকিপূর্ণ।’

অপু বলেন, ‘ব্যাংককের পর শাকিব আমাকে কলকাতা পাঠায় অ্যাবরশন করানোর জন্য। সেখানকার চিকিৎসকরাও অ্যাবরশন ওই সময় ঝুঁকিপূর্ণ জানিয়ে তা করতে অস্বীকার করেন। তখন আমি সন্তান জন্মদানের সিদ্ধান্ত নেই। আর এতেই শাকিব আমার ওপর খেপে যায়। তার সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটে ‘

শাকিব-অপুর বিয়ে হয় ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। কিন্তু ৯ বছর বিয়ের খবর গোপন রাখেন তাঁরা। এর মধ্যেই গত বছর ২৭ সেপ্টেম্বর তাঁদের ঘরে আবরাম নামে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। অপু বিশ্বাস গোপনে আগলে রেখেছিলেন শাকিব খানের ঔরসজাত সন্তানকে। তবে চলতি বছরের ১০ এপ্রিল একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ছয় মাস বয়সী ছেলে আব্রামকে সঙ্গে নিয়ে হাজির হন অপু। এরপর দেশজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয় বিষয়টি নিয়ে।

পরে শাকিব খান তাঁর স্ত্রী অপু বিশ্বাসকে তালাকনামা পাঠান গত ২৯ নভেম্বর। তবে সেই তালাকনামার খবরটি গণমাধ্যমে আসে গত সোমবার।

জানা গেছে, তালাকনামায় শাকিব খান দুটি কারণ দেখিয়েছেন। প্রথম অভিযোগ, অপু তাঁদের সন্তানকে কাজের লোকের কাছে রেখে কথিত বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে ভারতে বেড়াতে গিয়েছিলেন। আর দ্বিতীয় অভিযোগ, অপু তাঁর কোনো নির্দেশ মেনে চলেন না। তাই তিনি বিবাহবিচ্ছেদ চান।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1627 seconds.