• বিদেশ ডেস্ক
  • ০২ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৯:৪৯:২২
  • ০২ ডিসেম্বর ২০১৭ ১১:৪০:০১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

অস্ত্র বিক্রি : মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইসরায়েল

মিয়ানমারের সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং লাইং (ডানে) ও ইসরায়েলের সাবেক প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিন। ছবি : সংগৃহীত

ইসরায়েলের রাজধানী তেল আবিবে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত ম্যাং ম্যাং লিনকে তলব করেছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গত কয়েক মাস ধরে ইসরায়েল মিয়ানমারকে অস্ত্র সরবরাহ করে যাচ্ছে বলে ম্যাং লিন বক্তব্য দেওয়ার পর তাঁকে তলব করা হলো।

রাশিয়ার আরবি ভাষার নিউজ চ্যানেল রুসিয়া আল-ইয়াওম জানায়, ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে দাবি করেছে, তেল আবিব মিয়ানমারের কাছে কোনো ধরনের অস্ত্র বিক্রি করেনি। ইসরায়েল এই নিয়ে গত এক মাসে দ্বিতীয়বার মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রির কথা অস্বীকার করল।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত ম্যাং ম্যাং লিন শুক্রবার তেল আবিবে ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল বিষয়ক উপমহাপরিচালক গিলাড কোহেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, ওই সাক্ষাতে ম্যাং ম্যাং লিন তাঁর আগের বক্তব্যের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে তা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

ইসরায়েলের অস্ত্র প্রয়োগ করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দেশটির রাখাইন প্রদেশে লাখ লাখ রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা করেছে। গত ২৫ আগস্ট থেকে এই গণহত্যা শুরু হওয়ার পর আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিন্দার ঝড় উঠলে মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রির বিষয়টি অস্বীকার করে তেল আবিব।  অথচ এর আগে তেল আবিব রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যার জন্য মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রি করছে বলে ইসরায়েলের দৈনিক হারেতস খবর দিয়েছিল।

এর আগে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে ইসরাইলের কাছ থেকে অস্ত্র কেনার জন্য তেলআবিব সফরে যান মিয়ানমারের সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং লাইং। সে সময় ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিনের সঙ্গে তাঁর সাক্ষাত হয়। সম্প্রতি রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা শুরু হলে আবারো তেল আবিবের কাছ থেকে মিয়ানমারে অস্ত্রের চালান পাঠানো হয় বলে বিভিন্ন ইসরায়েলি গণমাধ্যম খবর দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0174 seconds.