• ০১ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৮:৪৮:১০
  • ০১ ডিসেম্বর ২০১৭ ২২:১৪:১৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

মনে পড়ে তোকে

ফাইল ছবি


এম.ডি. দিল্ল্যুর রহমান


তোকে খুব মনে পড়ছে আজ_
সেই যে শীতের সকালে এসেছিলি তুই।
তারপর আবারও শীত এলো, সকাল এলো
কত শীত চলে গেল, তপ্ত রোদ পুড়িয়ে গেল
কৃষাণের দেহ, ঘামে ভিজলি তুই, আমি
আরও সবাই।

সেই চলে গেলি তারপর কত পরিবর্তন এলো পৃথিবীতে।
বৈশ্বিক উষ্ণতা বাড়লো, বরফ গলে পানি;
উচ্চতা বাড়ল সমুদ্র পৃষ্ঠের।
বাজারে আগুন উঠল হু-হু করে;
দ্রব্য-মূল্য আকাশচুম্বী।
তিস্তা এখনও মরাই আছে;
শুধু রাজনীতি হয়েছে তাকে নিয়ে।

আমাদের আরও অধঃপতন হয়েছে,
বেড়েছে গরিবানা হাল।
বৈষম্যে-বৈষম্যে আমরা চাপা পড়েছি পুঁজিবাদের তলে।
এক উষ্কখুষ্ক কৃষ্ণবর্ণ লোক আওয়াজ তুলেছিল
সেদিন।
বিহিত চেয়েছিল এ বৈষম্যের।
কিন্তু ওরা থামিয়ে দিয়েছে তাকে।
বলতে দেয়নি আমাদের, আমাদের কথাগুলোই।

আবারও হয়েছিল প্রতিবাদী মিছিল;
সস্তা বাজার বস্তায় কেন ভরা?
ওরা গুড়িয়ে দিল সব, গ্রেফতারি পরওয়ানা এলো
হলুদ খামে মুড়ে।
এসব হলো তুই যাওয়ার পর।
আমি,আমরা কেউ'ই বলতে পারি না মনের কথাগুলো
প্রাণ-খুলে আজকাল।

আরও অনেক হয়েছে পরিবর্তন_
বদলে গেছিস তুই, বদলে গেছি আমি, আমাদের ধারণাগুলোও বদলেছে অনেকখানি।

এইতো!- কত বেকার প্রেম হারলো সেদিনও,
আবার কতেক হারাচ্ছে দ্বৈরথসমরে।
অনেকে আবার মোহিনীর মায়ায় পড়ে।
প্রেম-বাজারও বদলে গেছে, আগের মত নেই!
এখানে গুণের বহর কমে বিস্তর হয়েছে রূপটাই।
স্বার্থবাদে ভরে গেছে ছোট্ট এই মানবীয় উপকূল।

তুই এলে সব গল্প শোনাব তোকে।
আবারও হাঁটব বালুকার বেলাভূমিতে।
ময়ূরপঙ্খী ভাসাবো তিস্তার জলে।
গণপ্রতিবাদের মধ্যমণি হবি তুই।
সেই প্রতিবাদী ছেলেটা আবারও সাহস পাবে;
ডাক দিবে বিপ্লব।
রাত জেগে পোস্টার হবে, হবে প্রতিবাদী ছক।
চায়ের চুমুকে কথা হবে ঢের, উড়ে যাবে অনেক দীর্ঘশ্বাসের ইতিহাস।
প্রেম হবে আবারও তোর আর আমার;
শুধু তুই এলে।

আমার জন্য নয়!-
এই জনখাটা জনগণের জন্য হলেও
তোকে খুব দরকার।
একটা গণবিপ্লব, একটা প্রতিবাদের জন্যে হলেও
তোকে খুব দরকার আজ!
খুব মনে পড়ছেরে তোকে,
তোকে খুব মনে পড়ছে আজ !!

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মনে পড়ে তোকে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0197 seconds.