• ফিচার ডেস্ক
  • ১৪ নভেম্বর ২০১৭ ১৩:২৬:০২
  • ১৪ নভেম্বর ২০১৭ ১৮:১৫:৩৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
advertisement

ডায়াবেটিস রুখতে এড়িয়ে চলুন এই খাবারগুলো

আজ ১৪ নভেম্বর, বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। বিশ্ব জুড়ে সমীক্ষায় দেখা গেছে, নারীদের মধ্যে ডায়াবেটিসের প্রবণতা ভয়ঙ্করভাবে বাড়ছে। বিশ্বে প্রায় ২০ কোটি নারী এ রোগে আক্রান্ত। 

চিকিৎসকরা বলছেন, ডায়াবেটিসে যেমন স্বাস্থ্য ভেঙে পড়ে, তেমনই খাওয়ার ক্ষেত্রেও জারি হয় অনেক বিধি নিষেধ। জেনে নিন, সুস্থ থাকতে কোন খাবারগুলো এড়িয়ে চলবেন:

প্যাকেট ড্রিঙ্কস এবং সফট ড্রিঙ্কস: যে কোনও প্যাকটবন্দি পানীয় যেমন ফ্রুট জুস বা সফট ড্রিঙ্কস এড়িয়ে চলুন। এই পানীয়গুলির মধ্যে বিশেষত ফ্রুট জুসে রয়েছে ফ্রুকটোজ যা রক্তে শর্করার পরিমাণ বহুগুণ বাড়িয়ে দেয়।   

ট্রান্স ফ্যাট: মন যতই চাক, অতিরিক্ত তেল মশলাদার খাবার এড়িয়ে চলাই ভাল। এই খাবারে থাকে ট্রান্স ফ্যাট যা ইনসুলিনের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। ফলে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বাড়ে এবং ওবেসিটির প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। 

হোয়াইট ব্রেড, পাস্তা, সাদা ভাত: রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে গ্লাইসেমিক ইনডেক্সের মাত্রা কম আছে এমন খাবার খান। যেমন ব্রাউন ব্রেড, ওটমিল। গ্লাইসেমিক ইনডেক্স হল খাবার খাওয়ার পর রক্তে শর্করার পরিমাণ কতটা বাড়ছে তার আপেক্ষিক পরিমাপ। এর মাত্রা বাড়লে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বাড়ে। এড়িয়ে চলুন হোয়াইট ব্রেড, পাস্তা, সাদা ভাত। এগুলো রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায়। 

বেকড ফুড এবং ডেসার্ট: পেস্ট্রি, আইসক্রিম: শুনলেই জিভে জল আসে। জানেন কি কাপকেক, পেস্ট্রি, কুকিজ আপনার রসনাকে তৃপ্ত করছে ঠিকই, কিন্তু রক্তে ইনসুলিনের মাত্রা বাড়িয়ে দিচ্ছে বহুগুণ?

ফ্লেভার্ড দই: দই খেতে ভালবাসেন না এমন মানুষ বিরল। বিশেষজ্ঞদের মতে, দই খেতে হলে ঘরে পাতা দই খান। বাজার থেকে কেনা নানা রকম ফ্লেভার দেওয়া দই নৈব নৈব চ। এগুলো ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেক বাড়িয়ে দেয়।  

জাঙ্ক ফুড: রান্নার সময় বাঁচিয়ে ফাস্ট ফুডেই কি ভরসা রাখছেন আজকাল? চাউমিন, বার্গার, ফ্রেঞ্চ ফ্রাইতেই কাজ সারছেন? তাহলে সাবধান! এই খাবারগুলো ইতিমধ্যেই ‘হাই গ্লাইসেমিক ইনডেক্স’-এর তকমা পেয়েছে। রক্তে শর্করা বাড়বে হু হু করে।

মধু, জ্যাম, জেলি: প্রাতরাশে কি রোজ এগুলোই খান? তাহলেই এখনই ডায়েট চার্ট থেকে এদের বাদ দিন। বাজারচলতি মধু, জ্যামে থাকে ‘আর্টিফিশিয়াল সুগার’, যা স্বাস্থ্যের জন্য মোটেই ভাল নয়।  

চিপস: বাজারে এখন অনেক রকম রিফাইনড তেল পাওয়া যায়। বলা হচ্ছে, এগুলোতে ভাজা খাবার স্বাস্থ্যকর। কিন্তু মোটেই তা নয়। জানেন কি এই সব তেলে ভাজা চিপস বা স্ন্যাকস আপনার শরীরের বারোটা বাজাচ্ছে? ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বহুগুণ বাড়িয়ে দিচ্ছে।

সূত্র: আনন্দবাজার  

advertisement

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ডায়বেটিস খাদ্য

আপনার মন্তব্য

advertisement
Page rendered in: 0.1721 seconds.