• ১৭ অক্টোবর ২০১৭ ০০:২৪:৫০
  • ১৭ অক্টোবর ২০১৭ ১৭:৫০:৩৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বিয়াস তোমাকে


সাহিদা বেগম


পাইন গাছে মুড়েছি আমার দীর্ঘশ্বাস,
নিদ্রাহীন আমি-
নিজেকে নিংড়ে সর্বস্ব দিয়েছি তোমায়।
চুম্বন লোলুপ জলে
আমি ভিজিয়েছি আমার অঙ্গ;
কী শীতল তুমি বিয়াস!

হাতে ঢেউ দেই তোমার বুকে,
মধ্যরাতে তোমার কলকলা নিবারুদ বালিকা।
হে রুদ্র বিয়াস!

তুমি ভয়ংকর,তুমি ধ্বংসের, তুমি আতঙ্কের,
কি অপরুপ সেই আতঙ্ক।
তুমি ধ্বংস কর আমায়, তুমি জাগিয়ে তোল আমায় স্পর্শে,
বিয়াস! আমিক্লান্ত, পরাজিত,
আমায় নবজন্ম দাও।

হে রুদ্র বিয়াস!
নবজন্ম থেকে উঠে আসবে আমার নতুন নগ্ন উজ্জ্বল শরীর।

সহস্রমৃত্যু পার হয়ে আমি তোমায় পেয়েছি-
এলো মেলো চুল বালিশে ছড়ানো সূর্যের বন্যা,
ঝড়ের পাখির মত দোলে মন
দিগন্ত থেকে দিগন্তে;
তোমার চোখ স্তব্ধ, নিবিড়, কীনির্মল তোমার জল-
কী অসহ্য সুন্দর তোমার বয়ে যাওয়া।

কী শান্ত তুমি! তুমি কি ভেবেছিলে কখনো- 
তোমার কাছে এসে আমি তাই পাবো,
যা কোনদিন পাইনি?
নীল পাহাড়ের আড়াল থেকে তুমি এসেছ-
মেঘের কালো- নীল ,শরীরের রামধনু রং নিয়ে
স্বপ্নের মত।

--কী দুঃসাহস! তুমি হেসেছিলে আমার ছোঁয়ায়
আর সুর্যের চুম্বর ঝরে পড়েছে তোমার বুকে।
নিঃশব্দে জেনেছ তুমি আমাকে এবং আমার তোমাকে।

কবি ও সাহিত্যিক

 

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0175 seconds.