• বিদেশ ডেস্ক
  • ১২ আগস্ট ২০১৭ ১০:০৩:০৯
  • ১২ আগস্ট ২০১৭ ১৮:২৭:২৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ভারতের হাসপাতালে ৪৮ ঘণ্টায় মৃত ৩০ শিশু

ছবি: সংগৃহীত

ভারতের উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরের বিআরডি হাসপাতালে গত ৪৮ ঘণ্টায় ৩০ শিশুর মৃত্যু হয়েছে; যাদের অনেকেই নবজাতক। ঠিক কী কারণে এই শিশুদের মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে উত্তর প্রদেশ সরকারের তরফ থেকে স্পষ্ট করে কিছু না বলা হলেও অভিযোগ রয়েছে, হাসপাতালটিতে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরই এই শিশুদের মৃত্যু হয়েছে। 
আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিনটি ওয়ার্ড মিলিয়ে মৃত ওই ৩০ শিশুই এনসেফ্যালাইটিসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। আর এনডিটিভির এক সংবাদে বলা হয়েছে,৪৮ ঘণ্টায় ৩০ এবং গত পাঁচ দিনে ৬০ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধের যে তত্ত্ব সামনে এসেছে তাতে স্বাভাবিকভাবেই এখন প্রশ্ন উঠছে কেন বন্ধ করা হলো অক্সিজেন?

যে বেসরকারি সংস্থাটি ওই হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ করে তাদের দাবি, প্রায় ৭০ লাখ টাকার সিলিন্ডার কিনে মাত্র ৩৫ হাজার টাকা পরিশোধ করেছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বাকি টাকার জন্য বারবার তাগাদা দেয়া হলেও টাকা পরিশোধ করছিল না হাসপাতাল। এ নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে চিঠিও দিয়েছিল ওই সংস্থা।

সংস্থাটির দাবি চিঠিতে স্পষ্ট জানানো হয়েছিল বকেয়া টাকা না পরিশোধ করলে তারা অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ করতে বাধ্য হবেন।

রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থনাথ সিং অবশ্য অক্সিজেনের অভাবে শিশু মৃত্যুর অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। রাজ্যের দেয়া বিবৃতিতে দিয়ে বলা হয়েছে, অক্সিজেন বন্ধ হয়ে নয়, অন্য কারণে মৃত্যু হয়েছে শিশুদের।

জেলা প্রশাসক রাজীব রাউতেলা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বুধবার থেকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে ২৩ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে আরও ৭ শিশুর। টাকা বাকি থাকায় সরবরাহকারী সংস্থা অক্সিজেন বন্ধ করে দেয় বলে ওই হাসপাতালই আমাদের জানায়।

তবে এই শিশুদের মৃত্যুর জন্য অক্সিজেনের অভাবকে দায়ী করছে না হাসপাতাল। চিকিৎসকেরা বলছেন, তখনকার মতো অন্য জেলা থেকে অক্সিজেন সিলিন্ডার এনে পরিস্থিতি সামলানো হয়েছে। এ ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে উত্তর প্রদেশ সরকার।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.1745 seconds.