বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Mamata Narendra Modi meeting
ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর আর তিস্তা ইস্যুতে এখন সরগরম দুদেশ। এবারও তিস্তা নিয়ে কোনো সুরাহা হয়নি। বরাবরে মতো 'মমতা কার্ড' খেলেছে ভারত।

তবে শেখ হাসিনার সফরের সময় পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে পাশে রেখে তিস্তা ইস্যু দ্রুত সমাধানের 'পুরনো আশ্বাস' পুনরুক্তি করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সোমবার সকালে দিল্লির সাউথ ব্লকে মোদির সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা। তাই এই বৈঠকে তিস্তা ইস্যুতে কোনো আলোচনা হয়েছে কিনা তা জানতে সাংবাদিকদের আগ্রহের কমতি ছিল না।

বৈঠক শেষে মমতা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। বৈঠকের আলোচ্য বিষয় নিয়ে তিনি বলেন, “কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পশ্চিমবঙ্গের পাওনা ১০ হাজার কোটি টাকা। আমি সেই অর্থ ছাড় দেয়ার জন্য অনুরোধ করেছি।”

মমতা আরও বলেন, “বৈঠকে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) দিয়ে ভোট গ্রহণে আপত্তির কথা জানিয়েছি। ইভিএমের অকার্যকারিতা নিয়ে আমি 'অবিশ্বাস্য' নামে একটি বইও লিখেছি। ইভিএম থেকে আবার ব্যালটে ফিরে যাওয়ার কথা বলেছি।”

এসময় মোদির সঙ্গে বৈঠকে তিস্তা প্রসঙ্গ এসেছিল কিনা-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে মমতা ক্ষেপে যান। তিনি পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, “এসব কথা কেন বলব?”

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক নদী তিস্তার পানি দেয়ার ক্ষেত্রে বরাবরের মতো নেতিবাচক মমতা ব্যানার্জি। এবার আরেক ধাপ এগিয়ে তিনি বলেন, তিস্তায় নাকি কোনো পানি নেই।

আপনার মন্তব্য

advertisement