বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

advertisement
ছবি: সংগৃহীত

নানীর প্রেমিকের হাতে মৃত্যু হল চার বছরের এক শিশুকন্যার। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদিয়ার হাসখালিতে ঘটেছে এই ঘটনা।

স্থানীয় সূত্রের খবর, হাসখালির গেরপোঁতার পূর্বপাড়ার বাসিন্দা বছর পঞ্চাশের চারুলতা পোদ্দারের সঙ্গে ওই এলাকারই বাসিন্দা জ্যোতিন্দ্রনাথ রায়ের বিবাহ বহিভূর্ত সম্পর্ক ছিল। মঙ্গলবার রাতে চারুলতার বাড়িতে আসেন জ্যোতিন্দ্রনাথ। সেই সময়ে ঘরের মধ্যে টিভি দেখছিল চারুলতার নাতনি ঈশিতা।

অভিযোগ, ঈশিতাকে নিজের একটি পিস্তল দেখাচ্ছিল জ্যোতিন্দ্রনাথ। সেই সময় আচমকাই পিস্তল থেকে গুলি বেরিয়ে যায়। গুলি লাগে ঈশিতার কপালে। সঙ্গে সঙ্গেই ঈশিতাকে উদ্ধার করে বগুলা গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনার পর থেকে পলাতক মূল অভিযুক্ত জ্যোতিন্দ্রনাথ। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে হাঁসখালি থানার পুলিশ। জ্যোতিন্দ্রনাথের হাতে কী করে আগ্নেয়াস্ত্র এলো, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জ্যোতিন্দ্রনাথের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন মৃত শিশুটির নানী।

তার অবশ্য দাবি, দীর্ঘদিনের পুরানো সম্পর্ক থাকলেও মাঝে ৫ বছর জ্যোতিন্দ্রনাথ তার বাড়িতে আসত না। সম্প্রতি ফের সে যাতায়াত শুরু করে।

বাংলা/আরএইচ

advertisement

আপনার মন্তব্য